যুবরাজের এই রেকর্ড গুলিই তাকে ক্রিকেট জগতে বানিয়ে ছিল “সিং ইজ কিং”-দেখে নিন যুবির করা সেই রেকর্ড গুলি…

আজ আমরা কথা বলবো সবার প্রিয় ক্রিকেটার যুবরাজ সিং এর সম্বন্ধে। বর্ন ফাইটার যুবরাজ সিংয়ের কাহিনী বরাবারই অন্য রকম। ভারতীয় টিম এর সেরা ক্রিকেটার এবং ২০১১ এর বিশ্বকাপের হিরো ছিলেন যুবরাজ সিং । গতকাল তিনি মুম্বাইয়ের এক হোটেলের সাংবাদিক বৈঠকে ক্রিকেট জগত থেকে সন্ন্যাস নেওয়ার কথা জানান । তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, “ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট থেকে তিনি অবসর নিয়ে ক্যন্সার পেশেন্টদের জন্য কিছু একটা করতে চান”।

১২ ই ডিসেম্বর ১৯৮১ চণ্ডীগড় – এ জন্ম নেওয়া এই ক্রিকেটার হাজার ১৯ সে সেপ্টেম্বর 2007 এ ,’ওয়ার্ল্ড টি – ২০ ‘ তে প্রথম ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ছয় বলে ছয়টি ছয় মেরে নিজের নামে রেকর্ড তৈরি করেন। শুধু তাই নয় , টি-২০ তে প্রথম ১২ বলে ৫০ রান করার রেকর্ডটিও তিনি নিজের নামে করে নেন। যদিও ছয় বলে ছয়টি ছয় মারার যুবরাজ সিং এর আগেও অনেকে রেকর্ড করেছে। আপনি হয়তো কল্পনাও করতে পারবেন না যুবরাজ সিং এর নামে কতগুলি রেকর্ড আরো রয়েছে।

যুবরাজ ২০০০ সালে ইন্ডিয়া টিমে ডেবিউ করেন। এবং তার শেষ ইন্টারন্যাশনাল ম্যাচ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে খেলেছিলেন। যুবরাজ সিং ভারতের জন্য ৩০৪ টি ওয়ান্ডে ম্যাচে মোট ৮৭০১ রান করেছেন। যুবি তার টেস্ট ডেবিউ মোহালির মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলে শুরু করেছিলেন, আর তার জীবনের শেষ টেস্ট ক্রিকেট ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে কলকাতার মাঠে খেলেছিলেন। তিনি টেস্টে ৬২ ইনিংস খেলে ১৯০০ রান করেন । তিনি তার জীবনে ৫৮ টি টি-২০ ম্যাচ খেলে মোট ১১৭৭ রান করেছেন, আপনাদের জানিয়ে দিই যুবরাজ সিং তার শেষ টি-২০ ম্যাচ ব্যাঙ্গালোরে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলেছিলেন।

তিনি ওয়ানডে ক্রিকেটে ১৪ টি শতক এবং ৫২ টি অর্ধশত রান তার নামে রয়েছে, আবার অন্যদিকে টেস্টে ৩ টি শতক এবং ১১ টি অর্ধশতক রয়েছে । টি-২০ যুবরাজ সিংয়ের নামে ৮ টি অর্ধশতক রয়েছে।২০ মার্চ ২০১১। বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে খেলতে নেমে মাঠেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন যুবি। ব্যাট করার সময় আচমকাই বমি করতে শুরু করেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের তৎকালীন পোস্টার বয়। কোনো মতে নিজেকে সামলে ব্যাট হাতে খেলতে নেমে ১২৩ বলে ১১৩ রানের দুর্ধর্ষ ইনিংসও খেলেছিলেন পাঞ্জাব তনয়। সেই বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির ভারত।

প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছিলেন যুবরাজ সিং।এর পরের এক বছর ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন যুবি। ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম সেরা বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান ব্রেন ক্যান্সারে আক্রান্ত বলে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা। এই দুঃসংবাদ চাউর হতেই হতাশায় ভেঙে পড়েন যুবি ফ্যানরা। কিন্তু ভাঙেননি ক্রিকেটার নিজে। রাশিয়ার হাসপাতালে দীর্ঘ ছ-মাস ধরে ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করার পর মনের জোরে আবারও ক্রিকেটে ফিরে এসেছিলেন যুবি। সবাইকে চমকে দিয়ে ২০১২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতীয় দলে কামব্যাক করেছিলেন এই বাঁ-হাতি।

আমরা যুবরাজ সিংকে এই বছর মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দলের হয়ে খেলতে দেখেছি । যদিও তিনি মুম্বাই দলের হয়ে অতটা ভালো এই বছর প্রদর্শন করতে পারেননি।
আপনারা জানলে অবাক হবেন যুবরাজ সিং এর নামে একটি আইপিএল সিজেন এর মধ্যে দুবার হ্যাটট্রিক নেওয়ারও রেকর্ড রয়েছে যেটি এখনো পর্যন্ত কেউ ভাঙতে পারেনি। আবার দিল্লি ডেয়ারডেভিলস যুবরাজ সিংকে ১৬ কোটি টাকা দিয়ে আইপিএল দলে কিনে যুবরাজ সিং এর নামে আরেকটি রেকর্ড গড়ে দেয়। আইপিএলের এখনো পর্যন্ত সব থেকে বেশি টাকা দিয়ে কেনা প্লেয়ারের রেকর্ড তার নামে রয়েছে।


২০১১ ওয়ার্ল্ড কাপ টিম ইন্ডিয়াকে জেতানোর জন্য তিনি এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। তিনি ব্যাটিং এর পাশাপাশি বোলিংয়েও অনেক ভালো প্রদর্শন করেছিলেন । আর তার এই প্রদর্শনীর জন্য তিনি ” ম্যান অব দ্যা টুর্নামেন্ট ” হয়েছিলেন । তার খেলা এখনো পর্যন্ত ৩০৪ টি ওয়ানডেতে তিনি ১১১ টি উইকেট নিয়েছেন । আর তার আজকে ক্রিকেট জগত থেকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্তে হয়তো একটু হলেও ক্রিকেট প্রেমীরা হতাশ হয়েছেন।

Krishna

Krishna, a B.tech students writes on Technical and Business related Articals. Contact : krishnagarain.india@gmail.com

Related Articles

Close