দাদাকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা যুবরাজের…

আশা করি এ কথা কারো জানতে বাকি নেই যে, 2011 সালের ভারতের ক্রিকেট বিশ্বকাপ জেতার পিছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন যুবরাজ সিং। ব্যাটে, বলে দুর্দান্ত পারফর্ম করে তিনিই হয়েছিলেন সেদিনের সেরা খেলোয়াড়। এবার 2019 বিশ্বকাপের মধ্যেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা যুবরাজের। সাংবাদিক বৈঠক করে ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা করলেন যুবি।সেলিব্রিটি ক্রিকেটার ও ম্যাচ উইনার যুবরাজ ভারতীয় ক্রিকেটের রাজধানীতে বসে বলেন, ‘কলড ইট এ ডে’৷

সেই সঙ্গে 19 বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ার শেষ হল যুবি৷ 2000 সালে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে কেনিয়ায় আইসিসি নক-আউট ট্রফিতে কেনিয়ার বিরুদ্ধে ভারতীয় দলের জার্সিত অভিষেক হয় যুবরাজের৷ একই ম্যাচে যুবির সঙ্গে সেদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল ভারতের প্রাক্তন বাঁ-হাতি পেসার জাহির খান ও প্রাক্তন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান বিজয় দাহিয়ার৷ কিন্তু প্রথম ম্যাচে ব্যাট হাতে নামার সুযোগ হয়নি যুবির৷

তবে টুর্নামেন্টে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলেছিলেন তিনি৷ গ্লেন ম্যাকগ্রা, ব্রেট লি ও জেসন গ্যালিপি এই ত্রয়ী পেস আক্রমণের বিরুদ্ধে 84 রানের ইনিংস খেলে নজর কেড়েছিলেন পঞ্জাবের এই বাঁ-হাতি৷ তবে, আজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে বেসরকারি টি20 লিগগুলিতে খেলতে পাবেন তিনি। ইতিমধ্যেই কানাডার জিটি20 লিগ ও আয়ারল্যান্ড ও হল্যান্ডে আয়োজিত ইউরো টি20 স্ল্যামে খেলার জন্য ডাক পেয়েছেন যুবি। আজ আন্তর্জাতিক ও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা যুবরাজের।

এদিন সাংবাদিক বৈঠকে যুবরাজ, দাদা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।