যুবরাজ চাইলেন বিদেশী লীগ খেলার অনুমতি, বিসিসিআই জানালো এই সিদ্ধান্ত..

যেমন কি আপনারা জানেন কিছুদিন আগে ভারতীয় দলের অলরাউন্ডার তারকা যুবরাজ সিং অবসর নিয়েছেন। আজ যুবরাজ সিংয়ের নাম ভারতীয় দলে অন্যান্য নামকরা খেলোয়ারদের মধ্যে অন্যতম।2011 সালের বিশ্বকাপে ভারতীয় দলকে জয় এনে দিতে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি এই যুবরাজ সিং। যার জন্য তাকে এই ম্যাচের “প্লেয়ার অফ দ্যা টুর্নামেন্ট দেয়া হয়েছিল। এছাড়া 2007 সালের টি-টোয়েন্টি ম্যাচে যুবরাজ ব্যাট হাতে দুর্দান্ত প্রদর্শন দেখিয়েছিলেন।

যুবরাজ সিংয়ের অবসর নেওয়ার পেছনের কারণ হিসাবে এখন জানানো হচ্ছে তিনি বিদেশি টি-টোয়েন্টি লীগ খেলতে চান।আর এখন যুবরাজ বিসিসিআইয়ের কাছে টি-টোয়েন্টি খেলার অনুমতি চেয়েছেন। তিনি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে এ নিয়ে চিঠি ও লিখেছেন।আরো যেমন কি আপনারা জানেন তিনি ভারতের হয়ে শেষ ম্যাচ খেলেছিলেন 2017 তে। আর তারপর থেকে তিনি আর সুযোগ পাননি ভারতীয় দলের হয়ে খেলার।

তবে 2019 আইপিএল ম্যাচে তাকে দেখতে পাওয়া গেলেও বেশি সুযোগ দেওয়া হয়নি খেলার।আইপিএলে ও তাকে বেশি সুযোগ দেওয়া হয়নি আর এই কারণে যুবরাজ বিদেশি লীগ খেলার জন্য অবসর নিয়ে নেন। বিসিসিআই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আর আইপিএল সমেত ঘরোয়া ক্রিকেট খেলা খেলোয়াড়দের বিদেশী লীগে খেলার অনুমতি দেয় না। যদিও যুবির সঙ্গে এমনটা নাও হতে পারে। আর তিনি অনুমতি পেতে পারেন। যা নিয়ে বিসিসিআইয়ের এক আধিকারিক পিটিআইকে বলেন, “ও কাল বোর্ডকে চিঠি লিখেছে। আমার ওর বিদেশী লীগে খেলার অনুমতি পাওয়ায় কোনো সমস্যা দেখছি না। কারণ ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আর আইপিএল থেকে অবসর নিয়ে ফেলেছে”।

তবে যুবরাজ সিং যদি এই বিদেশী লিগ খেলার অনুমতি পেয়ে যান তবে তিনি ভারতের হয়ে প্রথম ভারতীয় হবেন না যিনি বিদেশি টি-টোয়েন্টি লীগ খেলবেন। কারণ এর আগেইউএইতে হওয়ার টি-10 লীগে বীরেন্দ্র সেহবাগ, জাহির খান, আরপি সিং মুনাফ প্যাটেলের মত খেলোয়াড় খেলেছেন। যুবি অবসর ঘোষণা করার পর বলেছিলেন এই বয়সে আমি মনোরঞ্জনের জন্য কিছু ক্রিকেট খেলতে পারি। আমি এখন নিজের জীবনের মজা নিতে চাই। আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আর আইপিএলের ব্যাপারে ভাবা যথেষ্ট চাপের হয়।

Related Articles

Close