গাড়ি চালানোর সময় অবশ্যই নিজের কাছে রাখুন এই চারটি দস্তাবেজ, তাহলে কোন দিনই কাটবেনা চালান

পরিবহন বিভাগ এর তরফ থেকে একটি বিশেষ ধরনের অভিযান চালানো হয়েছে। এবং এই অভিযান অনুযায়ী গাড়ি চালানোকালিন সময়ে যদি আপনার কাছে গাড়ির জরুরি কাগজপত্র গুলি না থাকে তবে সেই মুহূর্তেই আপনার চালান কেটে নেওয়া যেতে পারে। আর এই চালানটির মূল্য কমবেশি ১০০০ টাকা বা তার অধিক ও হতে পারে। কিন্তু এখনো এমন অনেক ব্যাক্তি আছেন যারা এটা জানে না যে  কোন কোন কাগজপত্র গুলি তার গাড়ির জন্য জরুরি।

তবে আপনাদের জানিয়ে দিই , যদি আপনার কাছে দূষণ পরীক্ষণ পত্র না থাকে তাহলেও আপনার চালান কাটা যেতে পারে। বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় এই কাগজপত্রগুলো অবশ্যই সঙ্গে রাখবেন:

ড্রাইভিং লাইসেন্স: গাড়ি চালানোর আগে ড্রাইভিং লাইসেন্স অবশ্যই সঙ্গে রাখবেন আর যদি আপনার কাছে লাইসেন্স নেই এবং আপনি গাড়ি চালাচ্ছেন তাহলে এটি সত্যিই অনেক বড় অপরাধ, এজন্য আপনার চালান কাটা যেতে পারে।

গাড়ির রেজিস্ট্রেশন: যে কোন গাড়ি কেনার পর তার  একটি রেজিস্ট্রেশন থাকে, রেজিস্ট্রেশনের পর এই গাড়িটির নাম্বার দেওয়া হয় আর এটিকেও নিজের কাছে রাখা অত্যন্ত আবশ্যক ।

বীমা: যদি আপনি আপনার গাড়িটি বীমা না করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনার চালান কাটা হবে। তাই বাড়ি থেকে গাড়ি নিয়ে বের হবার আগে বীমা কাগজ সঙ্গে রাখবেন।

জরুরি নির্দেশ: দুই চাকা বিশিষ্ট গাড়ির পেছনে যে বসবে তার ও হেলমেট পরা অনিবার্য, যদি আপনি বিনা হেলমেট ধরা পড়েন তাহলে আপনাকে ১০০০ টাকার  ক্ষতিপূরণ এবং ৩ মাসের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি প্রাপ্ত হবে। দুই চাকা বিশিষ্ট গাড়িতে দুজনের বেশি বসলে ১০০০ টাকার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। দুই চাকা হোক অথবা চার চাকা বিশিষ্ট গাড়ি টি অতিরিক্ত স্পিডে চালালে ২০০০ টাকার ক্ষতিপূরণ অনিবার্য।

মাদক দ্রব্য পান করে গাড়ি চালালে ১০,০০০ টাকার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। গাড়ি চালানোর সময় ফোনে কথা বললে ৫,০০০ টাকার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। ১৮ বছরের কম বয়সী কেউ গাড়ি চালালে ২৫,০০০ টাকা এবং তিন বছরের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবধান রয়েছে। চার চাকা বিশিষ্ট গাড়িতে সিটবেল্ট না পরলে ১,০০০ টাকার  ক্ষতিপূরণ অবশ্যই লাগবে।

Related Articles

Close