ভুলে যান চাকরির চিন্তা! মাত্র সামান্য বিনিয়োগে প্রতিদিন আয় হবে ৫০০০ টাকা, করুন এই ব্যবসা

বর্তমানে চাকরির খোঁজ না করে এখন মানুষ নিজস্ব ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন কারণ আমাদের পশ্চিমবঙ্গ তথা ভারতবর্ষের চাকরির সুযোগ ভীষণভাবে কম। তাই আর এমন একটি জনপ্রিয় ব্যবসার কথা আপনাদের সামনে তুলে ধরবো যা আপনাকে ভবিষ্যতে ধনবান করতে সাহায্য করবে। বর্তমানে কলা অর্থাৎ ব্যানানা দিয়ে তৈরি চিপস ভীষণভাবে জনপ্রিয় হয়ে রয়েছে সকলের কাছে। এটি শুধুমাত্র ভারতবাসীরা নয় বিদেশিরাও বেশ পছন্দ করছেন। কলা যেহেতু স্বাস্থ্যের পক্ষে ভীষণভাবে উপকারী তাই এই স্ন্যাকস বিশেষভাবে পছন্দ করছেন সকলে। কলার চিপস ব্যবসা শুরু করার জন্য এলাকার মধ্যে কোম্পানির লোকদের খুঁজে বার করতে হবে আপনাকে।

বাজারে নিজস্ব ব্যবসা তৈরি করার জন্য অথবা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার জন্য যারা আগে থেকেই ব্যবসায় রয়েছেন তাদের ঠিকঠাক অনুসরণ করতে হবে আপনাকে….প্রথমে প্যাকিং, গুণমান এবং দাম নিয়ে সচেতন হতে হবে। আপনি যদি এই সমস্ত দিক ঠিকঠাক বজায় রাখতে পারেন তাহলে খুব সহজেই সফলতা অর্জন করতে পারবেন। আগে যারা আলুর চিপস খেতে পছন্দ করত তারা এখন এই কলার চিপস খেতে ভীষণ পছন্দ করছেন কারণ এতে রয়েছে পটাশিয়াম যা হার্ট বিট স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে পাশাপাশি দুর্বলতা ক্লান্তি নার্ভাসনেস এবং ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে কলা দিয়ে বানানো এই চিপস।

ছোট শহর এবং শহরতলীর দিকে এই সমস্ত চিপস খুব কম পাওয়া যায় তাই আপনি সহজেই নিজের ব্যবসা তৈরি করতে পারবেন। আপনি যদি বড় বড় শহরের দিকে না গিয়ে গ্রামেগঞ্জে এই সমস্ত চিপস বিক্রি করেন তাহলে খুব সহজেই আপনি আপনার ব্যবসা দাঁড় করাতে পারবেন।

এই ব্যবসা তৈরি করার জন্য আরও যে গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথা মাথায় রাখতে হবে সেগুলি হল-

১) প্রথমে আপনার প্রয়োজন FSAAI লাইসেন্স, যেহেতু এটি একটি খাদ্য সামগ্রীর ব্যবসা তাই আপনার এই লাইসেন্স থাকা বাঞ্ছনীয়।

২) যে কোন ব্যবসা শুরু করার জন্য জিএসটির সাইটে গিয়ে আগে নাম নথিভুক্ত করতে হয়। জিএসসি শংসাপত্র পাওয়ার পর প্রতি মাসে জিএসটি ফাইল পূর্ণ করলে আপনি ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

৩) ট্রেড লাইসেন্স: ব্যবসা শুরু করার সময় স্থানীয় পৌর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে নিতে হবে।

৪) : ছোট ব্যবসা শুরু করার জন্য MSME তে নাম নথিভুক্ত করা উচিত। এর মাধ্যমে সরকারি ভর্তুকি এবং বিভিন্ন ধরনের তহবিল ঋণ এবং অন্যান্য সরকারি প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা পেতে পারেন আপনি।

৫) ফুড বিজনেস অপারেটর লাইসেন্স: এই লাইসেন্স একমাত্র সেই সমস্ত ব্যবসায়ীদের প্রয়োজন হয় যারা খাদ্য সংক্রান্ত বিষয় ব্যবসা করেন। তাই আপনি যদি এই চিপসের ব্যবসা শুরু করেন তাহলে আপনার এই লাইসেন্স এর প্রয়োজন হবে।

এই ব্যবসা তৈরি করার জন্য যে সমস্ত প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি প্রয়োজন আছে সেগুলি হল পিলার, স্লাইসার, চিপস ভাজার জন্য মেশিন, প্যাকিং মেশিন এবং মিক্সার। এই মেশিন থাকলেই আপনি ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। indiamart.com থেকে আপনি এই মেশিন কিনতে পারবেন অথবা অফলাইনে দোকান থেকে ২৮ থেকে ৩০ হাজার টাকার বিনিময় আপনি কিনতে পারবেন এই মেশিন। মেশিন গুলি বসানোর জন্য দরকার পাঁচ থেকে ছয় হাজার বর্গফুট জায়গা।