ঘরে বসেই হতে পারবেন মালামাল, মাত্র ২ লাখ টাকা বিনিয়োগ করে আজই শুরু করুন এই ব্যবসা

আজ ঘরে বসেই ছোট ব্যবসা শুরু করা যায়। এর মধ্যে পাঁপড় তৈরির ব্যবসা রয়েছে, যা আপনি আপনার বাড়ি থেকে শুরু করতে পারেন। আপনি খুব অল্প টাকা দিয়ে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন এবং যদি আপনার পাঁপড়ের স্বাদ অনন্য এবং বিশেষ হয়, তবে আপনি এর মাধ্যমে অনেক টাকা উপার্জন করতে পারবেন। ভারত সরকারের ন্যাশনাল স্মল ইন্ডাস্ট্রিস কর্পোরেশন এর জন্য একটি প্রকল্প প্রতিবেদন তৈরি করেছে, যেখানে মুদ্রা প্রকল্পের অধীনে সস্তায় ৪ লক্ষ টাকা ঋণ পাওয়া যাবে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, মোট ছয় লাখ টাকার বিনিয়োগে প্রায় ৩০ হাজার কেজি উৎপাদন ক্ষমতা তৈরি হবে। এর জন্য ২৫০ বর্গমিটার জমির প্রয়োজন হবে। এই ব্যয়ের মধ্যে স্থায়ী মূলধন ও কার্যকরী মূলধন উভয়ই অন্তর্ভুক্ত। রিপোর্ট অনুযায়ী, স্থায়ী মূলধনের মধ্যে ২টি মেশিন, প্যাকেজিং মেশিন সরঞ্জামের মত খরচ এবং কার্যকরী মূলধনের মধ্যে কর্মীদের তিন মাসের বেতন, তিন মাসের জন্য কাঁচামাল এবং ইউটিলিটি পণ্যের ব্যয় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, এছাড়াও ভাড়া, বিদ্যুৎ, জল, টেলিফোন বিলের খরচও এতে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

এই ব্যবসা শুরু করতে কমপক্ষে ২৫০ বর্গফুট জায়গার প্রয়োজন, এছাড়াও তিনজন অদক্ষ শ্রমিক, দুজন দক্ষ শ্রমিক এবং একজন সুপারভাইজার লাগবে। এটি শুরু করতে আপনি ৪ লক্ষ টাকার ঋণ পাবেন। এরপরে আপনাকে আর ২ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। ঋণ নিতে আপনি প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা ঋণ প্রকল্পের অধীনে যেকোনো ব্যাংকে আবেদন করতে পারেন। ঋণের পরিমাণ ৫ বছর পর্যন্ত ফেরত দেওয়া যাবে।

পাঁপড় তৈরি করার পর তা পাইকারি বাজারে বিক্রি করতে হবে, এছাড়াও খুচরো দোকান, মুদি দোকান, সুপার মার্কেটের সাথে যোগাযোগ করে এর বিক্রি বাড়ানো যেতে পারে। একটি অনুমান অনুসারে, আপনি যদি মোট ৬ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন, তাহলে আপনি মাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করতে পারবেন। এতে আপনার লাভ ৩৫,০০০ থেকে ৪০,০০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে।