গোটা ঘর জুড়ে মাছির উৎপাত, তাহলে মেনে চলুন এই সহজ পদ্ধতি, দূর হবে বাড়ি থেকে সমস্ত মাছির উপদ্রব

আপনি কি মশা এবং মাছির উপদ্রব সহ্য করতে পারছেন না? আপনি কি বিরক্ত হয়ে যাচ্ছেন মশা-মাছি দেখে? আপনি কি বাড়ি থেকে এই সমস্ত কীটপতঙ্গ দূরে সরিয়ে ফেলতে চাইছেন? যদি এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর হ্যাঁ হয় তাহলে এই প্রতিবেদন একেবারে আপনার জন্য। আপনার মত যে সমস্ত মানুষরা বাজার চলতি হাজার হাজার স্প্রে ব্যবহার করলেও মশা মাছির উৎপাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে না তাদের জন্য চলে এসেছে একেবারে চটজলদি কিছু উপায় যা আপনি সামান্য অর্থ খরচ করলেই পেয়ে যাবেন। তবে আজ এই প্রতিবেদনের দ্বারা আপনাদের জানাব শুধুমাত্র মাছির হাত থেকে আপনি কিভাবে রক্ষা পাবেন।

লেবু এবং লবণ দিয়ে তৈরি স্প্রে: মাছি থেকে মুক্তি পাবার জন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন লেবু এবং লবণ দিয়ে বানানো স্প্রে। এই স্প্রে বানানোর জন্য এক কাপ জলে লেবুর রস এবং দুই চা-চামচ লবণ মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর ভালো করে সেই জল স্প্রে বোতলে ভরে নিয়ে প্রত্যেক দিন সকাল সন্ধা বাড়ির জানালায় দরজায় স্প্রে করে দিতে হবে। লেবু টক এবং নোনতা স্বাদ সহ্য করতে পারেনা মাছি তাই অনায়াসে আপনি রক্ষা পাবেন মাঝির হাত থেকে।

পুদিনা পাতার ব্যবহার: আপনি যদি বাড়ি থেকে মাছি তাড়াতে চান তাহলে অবশ্যই ব্যবহার করতে পারেন পুদিনা পাতা। এই পুদিনা পাতার গন্ধ ভীষণভাবে বিপদজনক গন্ধ মাছিদের জন্য। আপনি যদি বাড়ির বারান্দায় অথবা উঠোনে একটি পাত্রে পুদিনা গাছের চারা লাগাতে পারেন তাহলে মাছি আপনার বাড়ির আশেপাশে ঘোরাফেরা করবে না। এছাড়াও বাজার থেকে পুদিনা কিনে সেই পুদিনা প্রাকৃতিক স্প্রে হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এক কাপ জলে পুদিনাপাতা মিশিয়ে ভালো করে মিক্সিতে পিসে নিতে হবে। এরপর ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে নিয়ে একটি স্প্রে বোতলে ভরে প্রত্যেকদিন ঘরের দরজা জানলা দিয়ে স্প্রে করে দিতে হবে যাতে মাছি প্রবেশ না করতে পারে আপনার বাড়িতে।

রূপচর্চায় পুদিনা পাতার ব্যবহার

আপেল এবং লবঙ্গ ব্যবহার: আপনি যদি মাছির হাত থেকে পরিত্রান পেতে চান তাহলে একটি আপেল এবং কয়েকটি লবঙ্গ ব্যবহার করলেই এই কষ্ট থেকে রক্ষা পেতে পারেন আপনি। প্রথমেই একটি আপেলকে দুটুকরো করে কেটে তারমধ্যে লবঙ্গ দিয়ে সেটিকে ঘরের কোনায় রেখে দিতে হবে। আপেল এবং লবঙ্গীর তীব্র গন্ধ মাছিকে তৎক্ষণাৎ বাড়ি থেকে বের করে দেবে এবং আপনার বাড়ির আশেপাশে আর মাসিকে দেখতে পাবেন না আপনি। আপেলের পরিবর্তে আপনি শসা অথবা লেবু ব্যবহার করতে পারেন।চুলের যত্নে লবঙ্গ - press card news

কর্পূর ব্যবহার: কর্পূর এমন একটি জিনিস যা প্রত্যেক হিন্দু পরিবারে ব্যবহৃত হয় বিশেষত পুজোর কাজে। কর্পূরের উগ্র গন্ধ মাছিরা সহ্য করতে পারে না ফলে কর্পূর জ্বালিয়ে রাখলে আপনার বাড়ির আনাচে-কানাচে দেখতে পাবেন না মাছি।

কর্পূরের ব্যবহারে ধন-ধান্যে ভরপুর থাকবে সংসার - astrological and vastu tips  to use camphor for property and prosperity, Bangla News

দারুচিনি: আপনি দারুচিনির ব্যবহার করেও মাছের হাত থেকে মুক্তি পেতে পারেন। আমরা সকলেই জানি দারুচিনির সুগন্ধ কতখানি উগ্র হয় এবং এই গন্ধ কোনোভাবেই সহ্য করতে পারে না মাছি।

দারুচিনির স্বাস্থ্য উপকারিতা জানেন কি?

চিনি এবং ভুট্টার মিশ্রণ: আপনি যদি দ্রুত মাছির হাত থেকে মুক্তি পেতে চান তাহলে একটি কার্ডবোর্ডের চিনি এবং ভুট্টার মার দিয়ে তৈরি একটি ঘন দ্রবণ ছড়িয়ে দিতে পারেন। কার্ডবোর্ডটি বাড়ির দরজা অথবা মেঝেতে রেখে দিলে দেখবেন মাছি সঙ্গে সঙ্গে সেই পাটাতনে আটকে গেছে এবং উড়তে পারছে না।

What is Chipped Rice ( Chida Dahi) ? - পানিহাটি দণ্ডমহোৎসব ২০২২

এইভাবে ছোট ছোট কৌশল অবলম্বন করে আপনি অবশ্যই মাছের হাত থেকে মুক্তি পেতে পারেন। মনে রাখতে হবে মাছি ডায়রিয়াসহ নানান মারণ রোগ ছড়ানোর জন্য দায়ী তাই ঘরোয়া প্রতিকার গুলি ব্যবহার করে অবশ্যই আপনাকে মুক্তি পেতে হবে মাছি নামক পতঙ্গের হাত থেকে।