উত্তরপ্রদেশে আবারও ক্ষমতায় ফিরতে চলেছে যোগীর সরকার, সমীক্ষায় বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

২০২২ এ হবে উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন। আর তার জন্য জোর কদমে লেগে পড়েছে প্রায় প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দল। সেই দৌড়ে আছে কংগ্রেস, বিজেপি, বহুজন সমাজ পার্টি ও সমাজবাদী পার্টি। তবে গতবারের মতো বিধানসভা নির্বাচনে এইবারও এগিয়ে রয়েছে বিজেপি (Bharatiya Janta Party) দল। সুতরাং, উত্তরপ্রদেশে এবারও সরকার গঠন করবে বিজেপি, এমনই বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। সমীক্ষা অনুযায়ী উত্তরপ্রদেশ রাজ্যে আবারো যোগী আদিত্যনাথ সরকার গঠন করতে পারে।

যদিও গত ২০১৭ বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির ফলাফল বেশি ভালো হয়েছিল। তবে এইবারে তা কিছুটা ব্যাঘাত ঘটছে। সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে বিজেপি ২১৩ থেকে ২২১ টি আসন পাবে বলে মনে হচ্ছে। উত্তরপ্রদেশে এই বিজেপি দলকে শুধু অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি টক্কর দিতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আর অখিলেশ যাদবের আসন সংখ্যা হতে পারে ১৫২ থেকে ১৬২ টি।

উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বহুজন সমাজ পার্টির নেতৃ মায়াবতীও থাকবেন না আর এই দৌড়ে। সমীক্ষা অনুসারে, ৬৯ শতাংশ মানুষের মতে মায়াবতী আগামী বিধানসভা নির্বাচনে আর কোনো স্থানেই থাকবেন না। তাও ৭১ শতাংশ মানুষ এখনো তার ওপর ভরসা রেখেছে। অন্যদিকে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর বহু সমাজসেবামূলক কার্যকলাপ-এর ফলে কিছুটা সুবিধা হবে কংগ্রেস পার্টির। কিন্তু তা সত্ত্বেও সমীক্ষকরা মনে করছেন কংগ্রেস পার্টির আসন সংখ্যা হতে পারে ৬ থেকে ১০ টি।

দল আসন (৪০৩)

বিজেপি ২১৩-২২০

সমাজবাদী পার্টি ১৫২-১৬০

বহুজন সমাজপার্টি ১৬-২০

কংগ্রেস ৬-১০

অন্যান্য ২-৬

উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে সমীক্ষা অনুসারে বিজেপি থাকবে প্রথম স্থানে। তারা পাবে ৪১ শতাংশ ভোট। সমাজবাদী পার্টি থাকবে দ্বিতীয় স্থানে। তারা ভোট পেতে পারে ৩১ শতাংশ। আর অন্যদিকে বহুজন সমাজ পার্টি ও কংগ্রেস ভোট পেতে পারে যথাক্রমে ১৫ ও ৯ ।