যোগীর মাস্টার স্ট্রোকে কুপোকাত মমতা ব্যানার্জির সরকার! নানান বাঁধা সত্বেও পুরুলিয়াতে হবে সভা,পষ্ট জানিয়ে দিলেন যোগী আদিত্যনাথ..

প্রথমে গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা তারপর আবার অমিত শাহের সভায় হেলিকপ্টার নামতে দেওয়ার অনুমতি নিয়ে গড়িমসি করা। প্রধানমন্ত্রীর ঠাকুরনগরের সভার অনুমতি নিয়ে নানা বাধা সৃষ্টি করে বাংলায় সভা না করতে দেবার চেষ্টা। এরপর যোগী আদিত্যনাথ এর ভয়ে উনার সভা যাতে না হতে পারে তারই চেষ্টা করছে মমতা ব্যানার্জির সরকার। গতকাল উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে বালুরঘাট ও রায়গঞ্জে সভা করতে দেয়নি মমতা ব্যানার্জি। বালুরঘাটে বিমানবন্দর থাকা সত্ত্বেও সেখানে যোগী আদিত্যনাথ এর হেলিকপ্টার নামার অনুমতি দেয়নি রাজ্য প্রশাসন। এরপর যোগী আদিত্যনাথ মোবাইল এর মাধ্যমে জনসভায় বক্তৃতা রাখেন।

যা তৃণমূল সরকার কে একেবারে কুপোকাত করে দিয়েছে।এদিন মোবাইলে বক্তৃতা দেওয়ার সময় যোগী আদিত্যনাথ মমতা ব্যানার্জির সরকার কে আক্রমন করে বলেন, মমতা ব্যানার্জির সরকার অগণতান্ত্রিক এবং অরাজকতার সরকার। তিনি আরো বলেন যে, আমাকে ভয় পেয়ে মমতা ব্যানার্জি আমার সভাগুলো করতে দিচ্ছে না।খবর পাওয়া যায় এদিন হেলিকপ্টার নামার অনুমতি না দেওয়ার পরেও তারা আরেক ধাপ এগিয়ে যোগী আদিত্যনাথ এর সভাস্থলে জাল দিয়ে মাঠবোঝায় করার অভিযোগ উঠে আসছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যোগী আদিত্যনাথ এর আপ্ত-সহায়ক এর সাথে কথা বলে তিনি জানান, ‘ মমতা ব্যানার্জী ও তার সরকার সরকার যোগী আদিত্যনাথ এর জনপ্রিয়তাকে ভয় পেয়ে রাজ্যসভা করতে দিচ্ছে না।’ এতকিছু ঘটে যাবার পরও আগামীকাল যোগী আদিত্যনাথ এর বাঁকুড়া স্বভাব বাতিল করে দিল রাজ্য প্রশাসন।

Advertisements

Advertisements

খবর সূত্রে জানা যায়, আগামীকাল বাঁকুড়াতে যোগী আদিত্যনাথ এর হেলিকপ্টার নামার অনুমতি দেওয়া হয়নি রাজ্য প্রশাসনের তরফ থেকে। আর তাই বাঁকুড়ার সভা বাতিল করা হয়েছে। এত কিছু বাঁধা অতিক্রম করে শেষমেষ পুরুলিয়াতে যোগী আদিত্যনাথ অনুমতি না মিললেও সভা করবেই বলে জানা গিয়েছে। কারণ পুরুলিয়াতে হেলিকপ্টার নামার অনুমতি না দিলেও তার পাশের রাজ্য ঝাড়খন্ডে নামবে যোগী আদিত্যনাথের হেলিকপ্টার। আর ঝাড়খন্ড থেকে সড়ক পথে তিনি পুরুলিয়া আসবেন সভা করতে।