অবাক কান্ড! ১৮০ বছর বাঁচার জন্য প্রতি বছর খরচ করেন ১৮ লক্ষ টাকা

অন্তত ১৮০ বছর বাঁচতে চান তিনি। তাই ইনজেকশনের মাধ্যমে ‘স্টেম কোষ’ নিজের শরীরে বার বার ঢুকিয়ে দিচ্ছেন৷ এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমেরিকার ৪৭ বছর বয়সি ধনকুবের ডেভ অসপ্রে। প্রত্যেক বার  তাঁর খরচ হচ্ছে ২৫ হাজার মার্কিন ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১৮ লক্ষ টাকা। ‘স্টেম কোষ’ নেওয়ার পরে প্রত্যেক দফায় নতুন করে যৌবন ফিরে পাচ্ছেন তিনি।

 

যৌবন ধরে রাখবেন কীভাবে এবং  দীর্ঘ দিন কী ভাবে বাঁচা যায়, তা নিয়ে ডেভ অসপ্রে অনেকদিন থেকেই  পরীক্ষা নিরীক্ষা করছেন একথা অনেকেই জানেন। দৈনন্দিন অভ্যাস থেকে প্রাতঃরাশকে সম্পূর্ণ বাদ দেওয়া, নিয়মিত বেশি পরিমাণে কফি খাওয়া— এসব নানারকম তত্ত্ব দিয়ে আসছেন তিনি। এ বার তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে শরীরে ‘স্টেম কোষ’ এর প্রবেশ। ডেভের ভাষায় এটি ‘বায়োহ্যাকিং’। তাঁর মতে, এই পদ্ধতি সাধারণ মানুষের মানুষের মধ্যে বিপুল জনপ্রিয় হয়ে উঠবে খুব শীঘ্র৷  যে ভাবে এখন হাতে হাতে মোবাইল, সে ভাবেই নাকি সবাই এই ‘বায়োহ্যাকিং’ করাতে ছুটবেন।

কিন্তু কেন ১৮০ বছর বাঁচতে চান? ডেভের কথায়, ‘‘পৃথিবীকে আমার অনেক কিছু দেওয়ার আছে। খুব কম সময়ে সেটা সম্ভব নয়।’’ তিনি বলেন,  যাঁদের বয়স ৪০ বছরের কম, তাঁরা যদি এই সময় থেকেই ‘স্টেম কোষ’-এর এই ব্যবহার শুরু করেন, তা হলে ১০০ বছর বয়সে পৌঁছেও নাকি একই রকম যৌবনে ভরপুর থাকবেন।

তাঁকে ‘ভারতরত্ন’ (Bharat Ratna) দেওয়ার দাবি জানানো বন্ধ হোক – রতন টাটা

ইতিমধ্যেই যৌবন ধরে রাখার গবেষণায় ১০ লক্ষ মার্কিন ডলার খরচ করেছেন ডেভ। ডেভ এর বক্তব্য,  ‘‘বয়স যখন কম থাকে, স্টেম কোষগুলো শরীরের ক্ষয় দ্রুত কমিয়ে দেয়। কিন্তু বয়স বাড়তে থাকলে স্টেম কোষের ক্ষমতা কমতে থাকে। নিজের অল্প বয়সের স্টেম কোষ আগে থেকে জমিয়ে রাখা যায়, এবং যদি সময়ে সময়ে সেই স্টেম কোষ শরীরে ঢুকিয়ে নেওয়া যায়, তা হলে শরীরের ক্ষয় আটকে ফেলা যাবে’’৷ এর পাশাপাশি খাদ্যাভ্যাস এবং জীবনযাত্রাতেও বেশ কিছু বদল এনেছেন এই ধনকুবের। গোটা প্রক্রিয়ার ফলে বয়স বৃদ্ধির কোনও চিহ্নই তাঁর শরীরের আর দেখা যাচ্ছে না।