চীন-পাকিস্তানের ঘুম উড়িয়ে এবার বিশ্বের সর্বোচ্চ রেল লাইন তৈরি করতে চলেছে ভারত..

বিশ্বের সর্বোচ্চ যুদ্ধক্ষেত্রে ভারত নিজের ক্ষমতা দেখিয়েছে। এবার বিশ্বের সর্বোচ্চ রেল লাইন তৈরি করে নজির গড়তে চলেছে ভারতীয় রেল সংস্থা। সূত্র থেকে জানতে পারা যায় চলিত সপ্তাহের মধ্যে ফাইনাল সার্ভে করা হবে রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। 498 কিলোমিটার বিস্তীর্ণ এই রেললাইন থাকবে বিলাসপুর- মনালি-লেহ জুড়ে । 3300 মিটার উচ্চতায় তৈরি করা হবে এ রেললাইন টিকে যা বিশ্বের সর্বোচ্চ। এই রেল লাইনের  কুটনৈতিক দিক থেকেও যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে।

চিনের কিংগাই- তিব্বত রেলওয়েকেও হার মানাবে এই ভারতীয় রেল লাইন। তাই প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে চীন সীমান্তে রেললাইন টিকে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ দিয়ে দেখা হচ্ছে। বর্তমান রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু গত 27 জুন এই রেল নেটওয়ার্কের সার্ভের কাজের সূচনা করবেন।এই রেল লাইন তৈরি করতে আনুমানিক 157,77 কোটি টাকা ব্যয় হবে। এই সার্ভের খরচ দেওয়া হচ্ছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে।

বিলাসপুর ও লে-র মধ্যে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ জায়গার উপর দিয়ে যাবে এই লাইন তাদের মধ্যে রয়েছে সুন্দর নগর মান্ডি, মানালি, তান্ডি, কেলং, কোকসার, দোরচা, উপসি ও কারু ইত্যাদির নাম। তিনটি পর্যায়ে সম্পন্ন করা হবে এই সার্ভের কাজ। বর্তমানে এখানকার রাস্তা পাঁচমাসের জন্য খোলা থাকে। শুধু পর্যটন নয় অর্থনীতির ক্ষেত্রে ও যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে এই রেল ট্রাক। চীন- নেপাল ও পাকিস্তান সীমান্তে রেল লাইন তৈরি উদ্যোগ নিয়েছে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী। সূত্র থেকে আরো জানা গেছে এরকম 14 টি লাইন তৈরি করা হবে তার মধ্যে প্রথম পর্যায়ে হবে চারটি লাইন।সেগুলি নিম্নরূপ- বিলাসপুর- মানালি-লে, মিসামারি-তেংগা-তাওয়াং, নর্থ লখিমপুর- বামে- সিলাপাথর ও পাসিঘাট-তেজু-রূপাই।

যাদের মধ্যে প্রথমটি তৈরি করা হবে কাশ্মীর সীমান্তে ও বাকিগুলো অসম ও অরুণাচল সীমান্তে। আর লে-তে এই রেললাইন তৈরি হলে ওই অঞ্চলের সঙ্গে হিমাচল প্রদেশের সরাসরি যোগাযোগ তৈরি করা সম্পন্ন হবে।

Related Articles

Close