মহিলা পালোয়ান বিনেশ নিজের বিয়েতে ৭ পাকের বদলে নিলেন ৮ পাক। ৮ নম্বর পাকে শপথ নিলেন এমন কিছু যা জেনে প্রত্যেকটি ভারতীয় গর্ববোধ করবেন ।

আজ আপনাদের সাথে এক আজব ঘটনা সম্পর্কে আলোচনা করব যা শুনলে আপনি কিছুটা হলেও অবাক হবেন। মহিলা রেসলার “বিনেশ ফোগাট ” এর বিয়ের সম্বন্ধে থাকবে আজকে আমাদের আলোচ্য বিষয়, আর এই বিয়ের অদ্ভুত ব্যাপার এটাই যে এই বিয়েতে ৭ টির জায়গাই ৮ টি ফেরে নেওয়া হয়েছে।আপনারা এটা জেনে আশ্চর্য হবেন কিন্তু এটাই সত্য। তো আসুন আপনাদের জানাই যে ,এই অষ্টম পাকটি কেনো নেওয়া হয়েছিল আর এই ফেরেতে কী বিশেষ শপথ নিয়েছিলেন তারা?এই বিয়েটা ২ পালোয়ানের মধ্যে হয়েছে যারা দেশের জন্য অনেক মেডেল ও সম্মান জিতিয়েছেন।

এশিয়া এবং কমনবেল্থ খেলার জয়ী যিনি গোল্ড মেডেলও জিতেছেন দেশের প্রথম মহিলা রেসলার বিনেশ ফোগাট, রাষ্ট্রীয় চাম্পিওনশিপের বিজেতা পালোয়ান সৌমবির রাঠির সঙ্গে বিয়ে করে নিলেন ।এদের বিয়ে অন্য সব বিয়ের মত সাধারণ নয়, এদের বিয়েতে হয়েছে নতুন কিছু।এই বিয়েতে অনেক জনপ্রিয় ব্যাক্তিরা এসেছিলেন এরা হলেন – সাক্ষী মালিক, পুরুষ পেহেলয়ান সুশীল কুমার, ভালা ফেক ইথলীথ নীরজ চোপরা, সংসদ দুষ্যেন্ত চোটালা সহিত আরো জনপ্রিয় ব্যাক্তি।এই বিয়ে দেশকে একটি অনেক বড়ো উদাহরণ দিয়েছে , এই বিয়েতে কোনো পন নেওয়া হইনি এছাড়াও এই বিয়েতে ৭ টির বদলে ৮ টি ফেরে নেওয়া হোয়েছে। অষ্টম ফেরেতে – মেয়ে বাঁচাও , মেয়ে পড়াও, মেয়েকে খেলতে দাও, এগুলো তারা প্রতিজ্ঞা করলেন।

আপনাদের জানিয়ে দিই যে ,ফোগাট এশিয়ায় লিগ খেলার পর তিনি সবাইকে জানিয়েদিলেন যে তিনি সৌমবীর রাঠি কে ভালোবাসেন। সৌমবীর রাঠি সোনিপত খরখোদার বাসিন্দা, আর তিনি এই সময় রেলের টিটির চাকরি করেন আর এখন রাজস্থানে নিযুক্ত। বীনেশ ফোগাট তিনিও রেলের চাকরি করেন,এদের বিয়ে সমস্ত মিডিয়াই চর্চার বিষয় হয়ে রয়েছে।