কার্ড না থাকলেও মিলবে স্বাস্থ্যসাথী সুবিধা কীভাবে পাবেন জেনে নিন সম্পূর্ণ পদ্ধতি

আগামী বিধানসভা নির্বাচনকে লক্ষ্য করে পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিক প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছেন। দুয়ারে সরকার তার মধ্যে অন্যতম। এই প্রকল্পের মধ্যে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প বিশেষ উল্লেখযোগ্য। এই প্রকল্পের আওতায় থাকা পরিবার 5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত বীমার সুবিধা পাবেন। আগে এই প্রকল্প কিছু বিশেষ পেশার মানুষের জন্য সীমাবদ্ধ থাকলেও বর্তমানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের সমস্ত মানুষকে এই প্রকল্পের আওতায় আনার কথা ঘোষণা করেছেন। এবং সেই মতন কাজ শুরু হয়েছে।

ইতিমধ্যে লক্ষ লক্ষ নাগরিক স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের জন্য নিজেদের নাম নথিভুক্ত করেছেন। কিন্তু আবেদন করা হলেও অধিকাংশ মানুষের কাছেই এই প্রকল্পের কার্ড এখনো পৌঁছয়নি। তাই বহু মানুষ এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এই সমস্যা সমাধানে এবার পথ দেখালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

দেশবাসীর সুবিধার্থে, নতুন Aadhaar বা সংশোধনের স্লট বুক করার সহজ পদ্ধতি আনলো UIDAI

এত বিপুলসংখ্যক কার্ড ছাপানো সময়সাপেক্ষ। স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা যাচ্ছে, একেকটি কার্ড ছাপাতে কম করে দশ মিনিট সময় লাগে। ইতিমধ্যে 14 লক্ষ স্মার্ট কার্ড দেওয়া হয়েছে। রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, বাকিদের কাছে পৌঁছাতে কিছুটা সময় লাগবে।

কিন্তু কার্ড ছাড়াও আপনি পেতে পারেন সুবিধা। কিভাবে পাবেন? আপনি যদি স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের জন্য আবেদন করে থাকেন তাহলে আপনার নাম নথিভুক্ত হয়ে যাওয়ার পর যদি কোনো কারণে আপনি অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন, তাহলে রোগীর নাম নথিভুক্ত থাকা ইউ আর এন নাম্বার দিয়ে ওয়েব সাইটে ফর্ম ফিলাপ করলেই মিলবে বীমার জরুরী টাকা। এমন কী জরুরী ভিত্তিতে যদি কোনো আবেদনকারী সেই URN নম্বর দিয়ে স্বাস্থ্য দপ্তর এর সাথে যোগাযোগ করে থাকেন তাহলে যত দ্রুত সম্ভব কার্ড তৈরি করে পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।