Skip to content

এক ঝটকায় ৩৫ শতাংশ কম যাবে ইলেকট্রিক বিল, শুধুমাত্র বাড়িতে লাগান এই বৈদ্যুতিক যন্ত্র

এক ধাক্কায় এবার মধ্যবিত্তদের পকেটের মিলতে চলেছে স্বস্তি, কারণ একটি সংস্থা বানিয়ে ফেলেছে একটি নতুন ডিভাইস, যার মাধ্যমে বিদ্যুতের বিল এক লহমায় অনেকটাই কম আসবে বলে দাবি তাদের। তাঁরা এটাও বলছেন যাদের ১০০০ টাকা মাসিক খরচ হয় এক লহমায় সেটি ৬৫০ টাকায় পৌঁছে যাবে। আসুন জানা যাক্ সে সম্পর্কে কিছু তথ্য।

এই নতুন ডিভাইসটির দাম মানুষের একদমই সাধ্যের মধ্যে, মাত্র ১৯১ টাকা, প্রতিদিন যেভাবে গরমের তীব্রতা বেড়েই চলেছে, তা থেকে স্বস্তি পেতে মানুষ ফ্যান ও এসির শরণাপন্ন হচ্ছে। যার ফলে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে বিদ্যুতের বিল, মধ্যবিত্তদের পকেটেও পড়ছে টান, যেখানে মানুষ অনেক পন্থা অবলম্বন করেও নিজের বিদ্যুতের বিলের সুরাহা করতে পারছেন না।

তাদের জন্য এই বিশেষ প্রতিবেদন, কিভাবে বিদ্যুতের বিল কমানো সম্ভব হবে। এই নতুন ডিভাইসটি শুধুমাত্র ইলেকট্রিক মিটারে ইন্সটল করতে হবে, তাহলেই কেল্লাফতে। নিমেষে ৩৫% বিদ্যুতের বিল কমে যাওয়ার দাবি রাখছেন সংস্থার কর্মকর্তারা, ওই ডিভাইসটি ১৫ কে ডব্লিউয়ের ডিভাইস, বর্তমানে এটি ফ্লিপ কার্ডে সহজলভ্য। আপনি আমি আমরা প্রত্যেকেই এটি মাত্র ১৯১ টাকার বিনিময় পেয়ে যেতে পারি নিজের বাড়িতে।

শুধু এখানেই শেষ নয়, এছাড়াও এটি কিনলে ক্রেতারা পেয়ে যেতে পারেন ১০০ টাকার গিফট কার্ডও। তবে সংস্থার পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়েছে যে এটি শুধুমাত্র বিদ্যুতের বিলই যে সাশ্রয় দেবে তা নয়, বাড়ির যেকোনো শর্ট-সার্কিট হলেও এই ডিভাইসটি বাড়িতে সুরক্ষা প্রদান করবে। যে কারণে তাঁরা মনে করছেন এই ডিভাইসটি প্রত্যেকের বাড়িতে ইন্সটল করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়, কারণ প্রত্যেকের বাড়িতে রয়েছে ফ্রিজ, এসির মত হাই ভোল্টেজ ডিভাইসগুলি, যেগুলি চালাতে প্রয়োজন হয় অনেক বেশি বিদ্যুতের।

সংস্থার পক্ষ থেকে একটি হিসাব দেয়া হয়েছে তা হলো, কোন পরিবারের যদি ১০ হাজার টাকা মাসিক বিদ্যুতের বিল আসে, তাঁরা নিজেদের বাড়িতেই ডিভাইসটি ইন্সটল করলে তাদের মাসিক বিলে সাশ্রয় ঘটবে প্রায় ৬৫০০ টাকার, এহেন দাবি এবং ই-কমার্স সাইটে অনেকের পজিটিভ রিভিউতে এই ডিভাইসটি বর্তমানে অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।