বজ্রপাতের সময় ওয়াইফাই ডিভাইস, মোবাইল, ল্যাপটপ কী চালু রাখা উচিত! কী বলছে বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা

বেশ কয়েকদিন ধরেই পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সঞ্চার হয়েছে। বৃষ্টির সাথে মেঘের গুরুগুরু গর্জন হলেই আমরা সকলেই বৈদ্যুতিক জিনিসগুলোকে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিই। বাড়িতে টিভি ফ্রিজ সবেরই বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিই। আমাদের অনেকেরই মনে প্রশ্ন জাগে যে বজ্রপাতের সময় ওয়াইফাই কানেকশন কি চালু রাখা উচিত?

ওয়াইফাই হল তারবিহীন এক ধরনের ইন্টারনেট সংযোগ। রাউটারের সাহায্যেই ওয়াইফাই চলে। আমাদের অনেকেরই ধারণা আছে বজ্রপাতের ফলে রাউটার যদি ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাহলে ওয়াইফাই এবং এর সাথে সংযুক্ত যন্ত্রগুলো নষ্ট হয়ে যাবে। এ প্রসঙ্গে প্রযুক্তিবিদরা বলেছেন বজ্রপাতের সময় রাউটার ক্ষতিগ্রস্ত হলে ওয়াইফাই এবং ওয়াইফাই এর সাথে সংযুক্ত মোবাইল বা কম্পিউটারের কোনো ক্ষতি হবে না। তবে বজ্রপাতের সময় রাউটার কে খুলে রাখাই বেশি নিরাপদ বলে মনে করছেন প্রযুক্তিবিদরা। তবে শুধু রাউটার নয়। সমস্ত বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতিকেই ইলেকট্রিক প্লাগ থেকে বিচ্ছিন্ন রাখাই নিরাপদ।

বজ্রপাত শুরু হলে মোবাইলকে কখনোই ইলেকট্রিক প্লাগে দিয়ে চার্জ দেবেন না। ল্যাপটপকে বৈদ্যুতিক সংযোগ থেকে বিচ্ছিন্ন রাখুন। যদি ল্যাপটপ ব্যবহার করেন তাহলে ব্যাটারি দিয়ে চালান। ফ্রিজ কে যদি স্টেবিলাইজার দিয়ে চালানো যায় ভালো। না হলে ফ্রিজ কে বন্ধ করে দিন‌।

বজ্রপাতের সময় আপনার বাড়ি বা অফিসে ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসগুলোকে সুরক্ষিত রাখার জন্য কাট আউট কে নিরাপদ রাখুন। আর এর জন্য মাঝেমাঝেই ইলেকট্রিশিয়ান ডেকে কাট আউট গুলোকে পরীক্ষা করিয়ে নিন।