অভিষেক বচ্চনের সাথে হেমা মালিনী করাতে চেয়েছিলেন মেয়ের বিয়ে, কিন্তু এই কারণের জন্য বিয়ে করতে রাজি হয়নি ইশা

বলিউডের ড্রিম গার্ল হেমামালিনী’ ৭০ দশকের একজন প্রতিষ্ঠা সফল অভিনেত্রী ছিলেন। চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে সফলতার সঙ্গে তিনি অভিনয় করে গেছেন বহু বছর। এমন কিছু সিনেমাতে তিনি অভিনয় করেছেন যা আজও সকলের মনে আলাদা করে জায়গা করে রেখেছে। আজও সমানভাবে সুন্দরী তিনি।

ধর্মেন্দ্র-হেমা মালিনীর প্রেমের কথা আমরা সকলেই জানি। হেমা মালিনী যখন ধর্মেন্দ্রর প্রেমে পড়লেন, তখন ধর্মেন্দ্র ছিলেন বিবাহিত। স্ত্রী বিবাহ বিচ্ছেদে রাজি না হওয়ায় কার্যত বাধ্য হয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন ধর্মেন্দ্র। তখন পারিবারিক সমস্যার সম্মুখীন হলেও আজ তাঁরা সুখী দম্পতি।


হেমা মালিনী ও ধর্মেন্দ্রর সব থেকে কাছের বন্ধু হলেন অমিতাভ বচ্চন। বাগবান সিনেমাতে হেমা মালিনী এবং অমিতাভ বচ্চনের কেমিস্ট্রি ছিল চোখে পড়ার মতো। হেমা মালিনী বরাবরই এসেছিলেন অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে তাদের পরিবারের যে বন্ধুত্ব সেটা আত্মীয়তাতে পরিণত হয়ে যাক।অমিতাভ বচ্চনের ছেলে অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে ইশা দেওলের বিয়ে হয়ে যাক, এমনটাই ইচ্ছা ছিল হেমা মালিনীর।


তবে হেমা মালিনী এই সম্পর্কে আগ্রহী হলেও ইশা দেওল অমিতাভ বচ্চন পুত্র অভিষেক বচ্চনকে বিয়ে করতে রাজি হননি। তিনি বরাবর অভিষেক বচ্চনকে ভাই হিসাবে দেখতেন। তাই তিনি কখনও অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে বিয়েতে রাজি হননি। প্রসঙ্গত, ইশা দেওল তাঁর ছোটবেলার বন্ধু ভরত তথকানিকে বিয়ে করেছিলেন ২০১২ সালে। ভরত একজন ব্যবসায়ী। অন্যদিকে অভিষেক বচ্চনও বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে বিয়ে করেন এবং বর্তমানে সুখী দম্পতি তাঁরা।