শুধুমাত্র এই বিশেষ কারণে রেলওয়েতে শীতকালে AC বন্ধ থাকলেও নেওয়া হয় চার্জ

ট্রেনের এসি কোচে বেড়াতে যাবার মজাই আলাদা, বিশেষত গরমকালে যখন বাইরে তীব্র দাবদাহ অথচ তখন ট্রেনের ভিতরে তাপমাত্রা একেবারেই আরামদায়ক। যদিও আমরা জানি এই এসি কোচের ভাড়া স্লিপার বা অন্য জেনারেল কোচের চেয়ে অনেকটাই বেশি, কিন্তু তবুও মানুষ নিজের আরামের সুবিধার্থে এসি কোচকেই বেশি প্রাধান্য দেয়।

তবে অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগে গরমকালে ট্রেনে এসি চলে, তাই যাত্রীদের থেকে বেশি ভাড়া নয় কিন্তু অপরদিকে শীতকালেও যাত্রীদের থেকে রেল কেন এসির ভাড়া নেবে? আসুন আজকের প্রতিবেদনে সেই কারণেরই অন্বেষণ করব আমরা। আসলে বিষয়টি হল গ্রীষ্মকালে বাইরের তাপমাত্রা যখন ৪০-৫০ ডিগ্রি থাকে তখন ট্রেনের ভিতরের তাপমাত্রা থাকে ২০ থেকে ২৫ ডিগ্রি।

অন্যদিকে শীতের মরসুমে যদি বাইরে তাপমাত্রা ০ ডিগ্রিতে নেমে যায় তখন ট্রেনের ভেতর তাপমাত্রা থাকে ১৭ থেকে ২১ ডিগ্রি অর্থাৎ শীতের মরসুমে ব্লোয়ার চালানো হয়, যার ফলে পুরো কোচ গরম থাকে।

তাই শীতকালেও মানুষ আরামদায়কভাবে যাতায়াত করতে পারে। এছাড়াও ট্রেনের এই এসিতে এক বিশেষ ধরনের হিটার লাগানো থাকে যে কারণে কোচগুলিকে গরম রাখতে পারে, আর তাই গরমকালে যেমন ঠান্ডা শীতকালে আবার তেমন আরামপ্রদ হয়।

যে কারণে যে কোন ঋতুতেই যাত্রীদের থেকে এসির চার্জ কাটে রেল। এই তথ্যটি আমাদের কাছে অনেকেরই অজানা, তাই রেলকে আরোপ করার আগে বিষয়টি জেনে নেওয়া দরকার কারণ ভারতবর্ষের মতো জায়গায় রেল হচ্ছে সব থেকে বড় যাতায়াতের মাধ্যম।