৯ টি দেশের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া এই নদীর ওপর নেই একটিও সেতু, কারণ জেনে চমকে যাবেন আপনিও

ইতিহাসের পাতায় বারবার উঠে নীল নদের নাম। এটি পৃথিবীর সবথেকে দীর্ঘতম নদী হিসাবে পরিচিত। দ্বিতীয় দীর্ঘতম নদীর নামে উঠে এসেছে আমাজন নদীর নাম। পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম নদী হওয়া সত্ত্বেও অ্যামাজন নদীর ওপর নেই কোন সেতু। জানিয়ে রাখি, অ্যামাজন নদীর দৈর্ঘ্য ৬৪০০ কিমি। এই নদীটি দক্ষিণ আফ্রিকার বলিভিয়া, পেরু, ব্রাজিল, ইকুয়েডর, কলম্বিয়া, গায়ানা, ভেনেজুয়েলা, ফ্রেঞ্চ এবং সারিনাম নামক ৯টি দেশের মধ্য দিয়ে গেছে। এতগুলো দেশের মধ্যে দিয়ে গেলেও আশ্চর্যজনকভাবে এই নদীর উপর কোন সেতু নির্মাণ করা হয়নি এখনও পর্যন্ত। এই নদীটি দক্ষিণ আমেরিকার ৪০% ঘিরে রয়েছে।

অ্যামাজন নদী পৃথিবীর বেশিরভাগ জলজ প্রাণীর আবাসস্থল। এই নদী তার সুস্বাদু জল এবং আয়তন এর জন্য পৃথিবী বিখ্যাত। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, নদীর পাড়ের মাটি অন্যান্যদের তুলনায় অনেক বেশি নরম হওয়ার জন্য এই নদীতে সেতু বানানো যাবে না। যদি সেতু বানানোর চেষ্টা করা হয় সে ক্ষেত্রে বহু টাকা খরচা হয়ে যাবে। এছাড়া এই নদীতে প্রচুর জলজ প্রাণী থাকার কারণে এই নদীর উপর সেতু তৈরি করা যাচ্ছে না।

সুইস ফেডারেল ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর চেয়ারপারসন ওয়াল্টার লিপম্যান লাইফ সাইন্সকে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, নদীর উপর কোন সেতু নেই। অ্যামাজন নদী এমন একটি অঞ্চলের মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে যেখানে কোন সেতুর প্রয়োজন হবে না। যে সমস্ত এলাকার জনসংখ্যা কম সেই সমস্ত এলাকার মধ্যে দিয়েই নদী প্রবাহিত হয়েছে। জনবহুল শহর গুলি এতটাই উন্নত, নদীর এপার থেকে ওপারে যাওয়ার জন্য ফেরির ব্যবস্থা করা রয়েছে। সম্ভবত এই কারনেই এই নদীর উপর কোন সেতুর প্রয়োজন হয়নি এখনো পর্যন্ত।