রতন টাটা ও আনন্দ মাহিন্দ্রার সঙ্গে কে এই মহিলা? অশ্বিনী বৈষ্ণবও করেছেন তার ছবি শেয়ার

প্রবীণ শিল্পপতি রতন টাটা এবং আনন্দ মাহিন্দ্রার সঙ্গে ছবিতে একজন মহিলাকে দেখা যাচ্ছে। এই মহিলা কে? কেন তিনি এই নামী ব্যবসায়ীদের তিরঙ্গা দিচ্ছেন? এই প্রশ্নগুলো নিশ্চয়ই আপনার মনে ঘুরছে। আমরা আপনাকে বলি যে, আনন্দ মাহিন্দ্রা, একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন, যেখানে একজন মহিলার হাত থেকে তিরঙ্গা পেয়ে গর্ব প্রকাশ করেছেন এই প্রবীণ শিল্পপতি।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবও তাঁদের ছবি শেয়ার করেছেন। ছবিতে আনন্দ মাহিন্দ্রা এবং রতন টাটার সঙ্গে দেখা যাচ্ছে যেই মহিলাকে, তিনি মুম্বাইয়ের পোস্টমাস্টার জেনারেল স্বাতী পান্ডে। ‘হর ঘর তিরাঙ্গা’ অভিযানের আওতায় এই শিল্পপতিদের তিরঙ্গা দিতে এসেছিলেন তিনি। অশ্বিনী বৈষ্ণবের সংযোগ হল তিনি ডাক বিভাগের একজন মন্ত্রী।

স্বাতী পান্ডে সিনিয়র আমলা। তিনি বর্তমানে পোস্ট মাস্টার জেনারেল পদে ইন্ডিয়া পোস্টের প্রতিনিধিত্ব করছেন, এছাড়াও তিনি চিলড্রেনস ফিল্ম সোসাইটির সিইও ছিলেন। এখানে তাঁর মেয়াদ ছিল ২০১৬ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৮ সালের মার্চ পর্যন্ত। তিনি পরমাণু শক্তি বিভাগে পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

স্বাতী পান্ডের কাছ থেকে তিরঙ্গা পেয়ে আনন্দ মাহিন্দ্রা লিখেছেন, “হর ঘর তিরাঙ্গা অভিযানের অংশ হিসেবে মুম্বাইয়ের পোস্টমাস্টার জেনারেল স্বাতী পান্ডের কাছ থেকে তিরঙ্গা গ্রহণ করা একটি সম্মানের বিষয়। আমাদের ডাক ব্যবস্থায় পতাকা উঁচু করে রাখার জন্য স্বাতীকে ধন্যবাদ।

” হর ঘর তিরঙ্গা অভিযানের অধীনে স্বাতী পান্ডে, রতন টাটাকে তিরঙ্গা উপহার দিয়েছিলেন, এছাড়াও তাঁকে চলচ্চিত্র অভিনেতা অনুপম খেরকে তিরঙ্গা দিতে দেখা গেছে। ডাক বিভাগ এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ১০ দিনে ১ কোটির বেশি জাতীয় পতাকা বিক্রি করেছে। এগুলো ডাক বিভাগ থেকে খুব কম দামে কেনা যাবে। অধিদপ্তর অনলাইনেও পতাকা বিক্রি করছে।