WhatsApp এর নতুন পলিসি, না মানলে ডিলিট হবে অ্যাকাউন্ট

ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ WhatsApp যা বর্তমানে Facebook এর মালিকানাধীন। আর এবার সেই Facebook এর তরফ থেকে এই ম্যাসেজিং অ্যাপ হোয়াটস অ্যাপ এর গোপনীয়তার সংক্রান্ত কিছু নীতি আপডেট করা হচ্ছে যেখানে এই পলিসি ধীরে ধীরে ব্যবহারকারীদের কাছে প্রকাশ করা হচ্ছে। WhatsApp এর তরফ থেকে এই নতুন নীতি গ্রহণ করার জন্য ব্যবহারকারীদের আগামী ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত সময়সীমা নির্ধারিত করে দেওয়া হয়েছে তারপর এটা করা বাধ্যতামূলক নইলে ডিলিট হয়ে যাবে আপনার প্রিয় WhatsApp অ্যাকাউন্ট।

প্রসঙ্গত হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের কাছে এটি অতি আবশ্যক নীতি যা গ্রহণ করতেই হবে। এছাড়া কোন অপশন পাচ্ছেন না ব্যবহারকারীরা, যদিও এখনো অব্দি “নট নাও” বলে অপশনটি দেখা যাচ্ছে তবে কিছুদিন পর এই অপশনটি সরিয়ে দেওয়া হবে বলে সংস্থার তরফ থেকে জানতে পারা যাচ্ছে। এই যে নতুন পলিসিটি নিয়ে আসা হয়েছে সেটি ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের একীকরণ আরো বেশি জোর দেওয়ার জন্য।


যদিও এর আগে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে ব্যবহারকারীদের তথ্য থাকতো কিন্তু এবার এই নতুন পলিসি অনুযায়ী সেই তথ্য আরো বেশি পরিমাণে থাকবে। যদিও এর আগেও হোয়াটসঅ্যাপে তথ্য ফেসবুকে শেয়ার করা হচ্ছিল তবে এবার সংস্থার তরফ থেকে পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়েছে আগামী দিনে ফেসবুকের সাথে হোয়াটসঅ্যাপ এবং ইনস্টাগ্রাম এর একত্রীকরন আরো বেশি পরিমাণে করা হবে। যদিও এক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপ আপডেট করার সময় আপনি যে লাইসেন্সটি কোম্পানিকে দিচ্ছেন সে সম্পর্কে কিছু তথ্য লিখে দেওয়া হয়েছে ,তাই এক্ষেত্রে অনুমতি প্রদান করার পূর্বে আপনি সেটা পড়ে নিতে পারেন অবশ্য এক্ষেত্রে কোনো বিকল্প অপশন নেই।

যদিও এর আগেই সংস্থার তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল নতুন বছরের শুরু থেকেই বেশ কিছু পরিবর্তন আনতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ যার দরুন নতুন বছরের শুরু থেকে বেশকিছু অ্যান্ড্রয়েড এবং আইফোনে WhatsApp চালানো আর সম্ভব হবে না (iphone এর মধ্যে যেগুলি iOS 9 এর নীচে রয়েছে, অন্যদিকে Android 4.0.3 এর নীচে যে গুলি রয়েছে)। যে তালিকায় রয়েছে কিছু এইচটিসি, এলজি, মটোরোলা, স্যামসাং ফোনের নাম।