এনআরসি-র জন্য কী কী নথি প্রয়োজন? দেখে নিন সেই তালিকা গুলি…

বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপিকে (BJP) এনআরসির নামে আগুন নিয়ে না খেলার হুঁশিয়ারি দেন এবং বলেন যে (Mamata Banerjee) রাজ্যে কখনও এনআরসি চালু করতে দেবেন না। তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো বিজেপির উদ্দেশে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন। নাগরিকদের জাতীয় নিবন্ধীকরণ বা এনআরসির রাজ্যের একজন নাগরিককেও স্পর্শ করে দেখুন বিজেপি নেতারা, এমন কড়া চ্যালেঞ্জই করতে শোনা যায় তাঁকে। “আমরা কখনই বাংলায় এনআরসিকে (NRC) চালু করার অনুমতি দেব না।

তবে তার পরই পাল্টা মন্তব্য বেরিয়ে আসে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের তরফ থেকে তিনি বলেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইলেও দেশজুড়ে এনআরসি করার প্রক্রিয়া বন্ধ হবে না। তিনি বেঁচে থাকতেই দেখে যাবেন এনআরসি পশ্চিমবাংলাতেও।অন্যদিকে বলে রাখি আসামে চালু হয়েছে এনআরসি প্রক্রিয়া চূড়ান্ত তালিকায় আপাতত বাদ পড়েছে 19 লক্ষ মানুষের নাম। নিজের দেশেই রাষ্ট্রহীন হয়ে পড়েছেন বলে অনেকেই মন্তব্য প্রকাশ করেছেন।আর এবার বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন এবার বাংলাতেও হতে চলেছে এনআরসি।

এছাড়া দিল্লিতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ বলে দিয়েছেন বাংলা এনআরসি প্রক্রিয়ার ফলে দু’কোটি নাম বাদ পড়বে তবে এখনো পর্যন্ত কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি এনআরসি প্রক্রিয়া করার নিয়ে বাংলায় আপাতত।তবে এখন এই প্রশ্ন অনেকের মনে জাগতে পারে এই এনআরসির জন্য কী কী নথিপত্র প্রয়োজন হতে পারে যা কিনা এই মুহূর্তে অসমের নাগরিকদের দেখাতে হয়েছে। প্রথম তালিকা গুলির মধ্যে যেগুলি রয়েছে -অসমে 1971 সালের 24 শে মার্চ মধ্যরাতের আগে কারও নিম্নলিখিত পত্রের নাম থাকলে তিনি এনআরসি ভুক্ত হতে পারেন।

প্রয়োজনীয় নথিপত্র গুলি নিম্নরূপ-1) 1951 সালের এনআরসি তালিকা 2) ভোটার তালিকা 1971 সালের 3) নাগরিকত্বের সার্টিফিকেট 4) জমি বা বাড়াবাড়ির প্রমাণ 5) স্থায়ী বসবাসের শংসাপত্র 6) শরণার্থীদের সার্টিফিকেট 7) পাসপোর্ট 8) সরকারি সার্টিফিকেট বা সরকারি লাইসেন্স 9) এছাড়া সরকারি চাকরির সার্টিফিকেট 10) এলআইসি পলিসি 11) জন্ম সার্টিফিকেট 12) ব্যাংক বা পোস্ট অফিসের ব্যাংক একাউন্ট 13) আদালতের নথি পত্র 14) এছাড়া যে কোনো বোর্ড বা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্টিফিকেট।

দ্বিতীয় তালিকা গুলির মধ্যে রয়েছে-বাবা-মা ঠাকুর্দা ঠাকুমার 1971 সালের 24 মার্চ মধ্যরাতের আগে নিম্নলিখিত তালিকায় নাম থাকলেই মিলতে পারে দেশের নাগরিত্ব– 1) জন্ম সার্টিফিকেট 2)জমির রেকর্ড 3) ইউনিভার্সিটি সার্টিফিকেট 4) ব্যাংক এলআইসি বা পোস্ট অফিসের কাগজপত্র 5) বিবাহিত মহিলাদের ক্ষেত্রে গ্রাম পঞ্চায়েত সার্টিফিকেট 6) রেশন কার্ড 7) 1971 সালের আগের ভোটার তালিকা 8) এছাড়া অন্য যেকোনো আইনগতভাবে বৈধ সরকারি কাগজপত্র।

The India Desk

Indian famous bengali portal, covers the breaking news, trending news, and many more. Email: theindianews.org@gmail.com

Related Articles

Close