কলকাতানতুন খবরবিশেষরাজ্য

জারি নির্দেশ!সোমবার থেকে কাজে ফিরতে চলেছেন রাজ্যের সরকারি কর্মচারীরা..

দেশজুড়ে প্রথম লকডাউনের দফায় বন্ধ ছিল বহু গুরুত্বপূর্ণ কাজ ,আর আবারো সেই লকডাউন এর মেয়াদ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজ্যের অতি আবশ্যক আপৎকালীন কাজের সঙ্গে যুক্ত দপ্তরগুলি বন্ধ থাকলে এবার বহু সমস্যায় পড়তে পারেন বহু মানুষ তাই এবার রাজ্যের নির্দেশে দ্বিতীয় লগ্নের দফায় খুলতে চলেছে সে সমস্ত জরুরী দপ্তর গুলি। আর আগামী কুড়ি এপ্রিল অর্থাৎ সোমবার থেকে এই সমস্ত দপ্তরের গুলি কাজ শুরু করার নির্দেশ দিয়েছে মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা।

গত বৃহস্পতিবার দিন এই বিষয়ক নির্দেশিকা জারি করেন রাজীব সিনহা, সেইখানে জানান রাজ্যের 25% কর্মী সরকারি দপ্তর গুলিকে কাজ শুরু করতে চলেছে আগামী সোমবার দিন থেকে। প্রসঙ্গত যেমনটা আমরা জানি প্রথম লকডাউন এর সময় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশ অনুযায়ী শুধুমাত্র পুলিশ, দমকল, ট্রেজারি, কারা বিভাগের মত অত্যাবশ্যকীয় কাজের সঙ্গে যুক্ত দপ্তর পুলিশ খোলার নির্দেশ ছিল। আর এক্ষেত্রে কম সংখ্যক কর্মী নিয়ে চলছিল সেই কাজ। এমনকি সরকারি কর্মীদের ডিউটির সময় কমিয়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী তার পাশাপাশি একাধিক দপ্তর গুলি বন্ধ ছিল যার ফলে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ আটকে পড়ায় সমস্যায় পড়েছিলেন দেশের সাধারণ মানুষেরা।তাই এবার গত বুধবার দিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের জুটমিল, ক্ষুদ্র নির্মাণ, ক্ষুদ্র শিল্প সংস্থা, ইটভাটা ও 100 দিনের কাজ চলার অনুমতি প্রদান করেছেন। আর সে ঘোষণার পাশাপাশি সেদিনই তিনি জানিয়েছিলেন এবার আগামী কুড়ি এপ্রিলের পর থেকে কাজে যোগ দিতে চলেছেন রাজ্যের যুগ্মসচিব উচ্চপদস্থ অধিকারীকেরা। একদিন অন্তর তারা দপ্তরে আসবেন। এর পাশাপাশি গত বৃহস্পতিবার দিন মুখ্যসচিবের তরফ থেকে যে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে সেখানে জানানো হয়েছে সচিব ও উচ্চপদস্থ কর্মীদের সঙ্গে তাদের সহকর্মীরাও এবার কাজে যোগ দেবেন এবং একটি দপ্তরের পরিসংখ্যার মোট 25% কাজ করবেন। আর কারা কারা আসবেন সেই নিয়ে তালিকা ইতিমধ্যে তৈরি করে দেওয়া হয়েছে তবে ওই নির্দেশিকায় উল্লেখ করে বলা হয়নি সরকারি কর্মীরা কিভাবে দপ্তরে আসবেন তাদের পরিবহনের জন্য কী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button