নতুন খবরবিশেষরাজ্যলাইফ স্টাইল

রাজ্যে করোনা রুখতে লকডাউন বাড়ানোর সাথে সাথে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ মুখ্যমন্ত্রীর

গতকাল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত হয় এই মাসের 30 এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হল। এর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেছিল 14 ই এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে লকডাউনের। যেহেতু দেশে করোনা পরিস্থিতি এখনো স্বাভাবিক হয়নি তাই এমন সিদ্ধান্ত বলে জানানো হয়েছে। ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দোকান ছাড়া সমস্ত দোকানই বন্ধ।ফলে সাধারণ মানুষকে নানান অসুবিধার মুখে পড়তে হচ্ছে।

তাই সাধারণ মানুষের কথা ভেবে সকাল 10 টা থেকে সন্ধ্যা 6 টা পর্যন্ত বাজার খোলা রাখার নির্দেশ দিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের যে সমস্ত এলাকায় কমপ্লিট লকডাউন চলছে সেখানেও সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত বাজার খোলা রাখা যাবে বলে জানিয়েছেন তিনি। শুক্রবারে নবান্নে মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাংবাদিক বৈঠক হয়। এই বৈঠকে মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা জানিয়েছেন, রাজ্যের 10 টি জায়গা পুরোপুরিভাবে সিল করে দেওয়া হবে এবং সেখানে কোনো দোকান খোলা থাকবে না।

এবং ওই দশটি জায়গাতে মানুষজনকেও বাড়ির বাইরে বের হতে পারবেন না এবং অন্য কেউ ওই এলাকায় ঢুকতে পারবেন না। ওই এলাকাগুলির প্রত্যেকটি বাড়িতে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌঁছে দেবে সরকারি আধিকারিকরা। শনিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রাজ্যের বেশ কয়েকটি স্থানে বিশেষভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে যেখানে লকডাউন কে আরো কড়াকড়ি করা হয়েছে। কিন্তু তিনি জানিয়েছেন যে, সেখানে বাজার হাট করতে কোন সমস্যা নেই এবং ওই এলাকাগুলিতে খোলা থাকবে মুদির দোকান।

মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন যে, এনিয়ে তিনটি টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে সরকারের তরফ থেকে। আর তাদের মধ্যেই এই স্থানগুলিতে নজরদারি চালানো হবে। এর আগে নবান্ন থেকে জানানো হয়েছিল যে, এরাজ্যে 11 টি পরিবার থেকে 60 জনের বেশি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছিলেন। আর সেই কারণেই হটস্পট গুলি চিহ্নিত করে সেখানে লকডাউন আরো কড়াকড়ি করা হচ্ছে। সেখানে সমস্ত দোকান বন্ধ থাকবে শুধুমাত্র ওষুধের দোকান এবং হাসপাতাল খোলা থাকবে। কারো যদি নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের প্রয়োজন হয় তাহলে পুলিশ এবং স্থানীয় পৌরসভা থেকে সাহায্য করা হবে বলে জানানো হয়েছে। সেই হিসাবেই রাজ্যের বেশ কয়েকটি জায়গা সিল করে দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Back to top button