একটি ক্রিকেট ম্যাচের জন্য ক্রিকেটারদের জীবনের সাথে অন্যান্য মানুষের জীবনকে বিপন্নে ফেলা যাবে না- কাপিল দেব

করোনা মহামারীর ত্রাণ তহবিল গড়তে ভারত- পাকিস্তান (India-Pakistan) দ্বিপাক্ষিক সিরিজে প্রস্তাব দিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন পেসার বোলার শোয়েব আখতার (Shoaib Akhtar)। তবে সেই প্রস্তাবটিকে ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক কপিল দেব (Kapil Dev) গত বৃহস্পতিবার দিন নিন্দা জানিয়েছেন। এদিন তিনি এই প্রস্তাবের নিন্দা জানিয়ে বলেন “ভারতের অর্থের কোন দরকার নেই”, এবং এই মুহূর্তে, একটি ক্রিকেট ম্যাচের জন্য বহু প্রাণের ঝুঁকি নেওয়া সম্ভব নয়।

যেখানে মহামারী জনিত কারণে বিশ্বজুড়ে এখন ক্রিকেট খেলাকে স্থগিত করে রাখা হয়েছে, ক্রিকেট বোর্ড গুলি যেখানে জনগণের সুরক্ষা কে অগ্রাধিকার দিয়েছে এবং প্রাদুর্ভাবের পরিপ্রেক্ষিতে বেশিরভাগ ফিক্সচার বন্ধ করে দিয়েছে। সেইখানে এইভাবে একটি ক্রিকেট ম্যাচ খেলে হাজার হাজার মানুষের প্রাণের ঝুঁকি নেওয়া যেতে পারে না। এই মুহূর্তে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আর এই মরন ভাইরাসের প্রভাব প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানেও পড়েছে সেখানেও নিত্যদিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। তাই এরকম এক সময়ে পাকিস্তানি পেসার বোলার শোয়েব আখতার এমন পরিস্থিতিতে ভারত পাকিস্তানের চিরশত্রুতা ভুলে তহবিল তৈরীর জন্য ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলার প্রস্তাব জানিয়েছিল। যেমনটা আমরা জানি 2007 সালের পর থেকে কিন্তু কূটনৈতিক কারণে ভারত বনাম পাকিস্তান সিরিজ বন্ধ রাখা হয়েছে। যার দরুন ভারত বনাম পাকিস্তান একে অপরের মুখোমুখি হতে পারে এশিয়া কাপ বা আইসিসির কোনো ইভেন্টেই।

এই বিষয়ে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক কপিল দেব জানান শোয়েব তার নিজের মতামত জানিয়েছে তবে আমাদের মানুষের জীবনকে দায়ে রেখে কোন অর্থ সংগ্রহের দরকার নেই এই মুহূর্তে।আর এই মহামারী করোনা বিরুদ্ধে লড়াই করতে আমরা নিজেরাই যথেষ্ট সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি হলো সেটি হল এই মুহূর্তে আমাদের সকলকে একসঙ্গে এই সংকটের মোকাবেলা করতে হবে।এর পাশাপাশি তিনি আরো জানান যে পরিস্থিতি খুব তাড়াতাড়ি যে স্বাভাবিক হবে তার সম্ভাবনা আপাতত দেখা যাচ্ছে না তাই ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন করে ত্রান তহবিল করার জন্য আমাদের ক্রিকেটারদের জীবন ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দেয়া উচিত হবে না।
তবে যাই হোক এই মুহূর্তে BCCI এ তরফ থেকে এই করোনাভাইরাস মোকাবিলার জেরে 51 কোটি টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছে এবং প্রয়োজন হলে আরও বেশি অনুদান দেবে তারা এর জন্য ক্রিকেট ম্যাচ খেলিয়ে তহবিল সংগ্রহ করা কোন দরকার নেই। এর পাশাপাশি কাপিল দেব আরো জানান এখন যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তার জেরে কমপক্ষে পরবর্তী ছয় মাসের জন্য ক্রিকেটকে এতটা গুরুত্ব দেওয়া উচিত নয়।

Related Articles

Close