গায়ে শিহরন দেওয়ার মত দৃশ্য, চিতাকে টেনে নিয়ে যাচ্ছে এক বিশালাকার কুমির দেখুন ভাইরাল ভিডিও

সোশাল মিডিয়ার দৌলতে এখন নানারকম ভিডিও সামনে আসে৷ তেমনি একটি ভিডিও সামনে এসেছে যা দেখলে চক্ষু চড়কগাছ হবে৷ কুমির শিকার করে নিয়ে যাচ্ছে চিতাবাঘ৷ কুমীরের শিকার করার ক্ষমতা দেখলে আশ্চর্য হয়ে যেতে হয়। একটি চিতাকে ১৩ ফুট এক কুমীর জলে টেনে নিয়ে যাচ্ছে৷ সেই ফুটেজ সামনে এসেছে। দক্ষিণ আফ্রিকার ওয়াইল্ডআর্থ সাফারির গাইড বুসানি এমটিশালি এই ভিডিও শেয়ার করেছেন৷ ডেইলে মেলে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, এটি অ্যান্ড বেয়ন্ড ফিন্ডা প্রাইভেট গেম রিজার্ভের ঘটনা ।

একটি চিতা জলাশয়ের ধারে ঘোরাফেরা করছিল। জল খেতে মুখ নীচু করেছিল৷ চিতাটি বুঝতেও পারেনি জলে ওৎ পেতে রয়েছে চরম বিপদ। জল খাওয়ার জন্য মুখ বাড়াতেই জল থেকে হঠাৎ উঠে এসে তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে একটি বিশাল কুমীর। চোখের পলকে চিতাকে কামড়ে ধরে জলে টেনে নিয়ে যায় কুমীরটি। আত্মরক্ষার কোনও অবকাশই পায়নি চিতা৷ কিছুক্ষণের জন্য জলে তরঙ্গ সৃষ্টি হয়৷ ধীরে ধীরে তা শান্ত হয়ে যায়।

সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি DRDO-র ঘাতক অস্ত্র পেতে চলেছে ভারতীয় সেনা, ১ মিনিটে ছুঁড়বে ৭০০ বুলেট

গাইড বলেন, ” এটা খুবই যন্ত্রণাদায়ক। ” তিমি জানান, “এই সব ঘটনায় আমাদের কিছুই করার ছিল না। কুমীরটি চিতার জন্য জলে গা ঢাকা দিয়ে ওৎ পেতে ছিল।”

ওয়াইল্ড আর্থ ডট টিভি ফেসবুকে ভিডিও শেয়ার করে লিখেছে, “ওয়াইল্ডআর্থের লাইভ সাফারিতে  গাইড বুসানি এমটিশালি একটি মা চিতা ও তার দুই শাবকের মুখোমুখি হয়েছিলেন।  তৃষ্ণা মেটাতে জলাশয়ের দিকে এগোচ্ছিল একটি চিতা। বুসানি তখন কুমীরটিকে ওৎ পেতে থাকতে দেখেন। এরপর যা ঘটনা ঘটে তা খুবই দুঃখজনক।”

আসলে খাদ্য খাদক সম্পর্ক এমনই৷ জীবন চক্রে প্রত্যেক প্রাণীরই নিজস্ব খাদ্যের জোগান করতে যা খুশি তাই করে৷