আইন করে গোটা দেশে বন্ধ হোক গো-হত্যা, মোদীর কাছে দক্ষিণা স্বরূপ চাইলেন ভূমিপুজোর পুরোহিত…

গত 5 ই আগস্ট অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পূজন করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যান। ভারত দেশের কাছে আগস্ট মাসের 5 তারিখটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ দিন ছিল কারণ 500 বছর পর ভগবান শ্রী রাম তার বাড়ি ফিরে পেয়েছেন। আর এই দিনটি পুরো ভারতবর্ষের কাছে এক বিশেষ দিন হিসেবে উদযাপিত হয়েছিল, অবশেষে রামভক্তদের এত বছরের তপস্যার ফল সফল হয়েছে। এই দিন সারা দেশজুড়ে ভগবান শ্রী রামের প্রতিধ্বনিত হতে থাকে। এই দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রাম মন্দিরের ভূমি পূজন করলেন এবং সাথে সাথে একথাও জানালেন খুব শীঘ্রই মন্দিরটি প্রস্তুত হবে এবং সকল রাম ভক্তরা তাদের প্রভুকে দেখার সুযোগ পাবেন।

সেই দিন ছিল অযোধ্যায় যেন একটি উৎসবের দিন।কিন্তু করোনা ভাইরাসের জন্য সাধারণ মানুষদের সেখানে অংশগ্রহণ করার কোনো সুযোগ ছিল না তাই তারা বাড়িতে বসেই টিভির পর্দায় ভূমি পূজনের অনুষ্ঠান দেখে সেই আনন্দ উপভোগ করেন। রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর প্রধান পুরোহিত ছিলেন পন্ডিত গঙ্গাধর পাঠক। তিনি প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর কাছে রাম মন্দির ভূমি পূজো করার জন্য দক্ষিণা চাইলেন। তবে দক্ষিণা স্বরূপ তিনি কোন ধরনের টাকা-পয়সা বা ধন-দৌলত চাননি প্রধানমন্ত্রীর কাছে। বরং প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর কাছে ওই পুরোহিতের দাবি যে, তিনি যেন সারা দেশে গো-হত্যা নিষিদ্ধ করে দেন।

আর প্রধানমন্ত্রী যদি এই আইন প্রয়োগ করেন তাহলে তার কাছে এটা দক্ষিণার সমান হয়ে দাঁড়াবে। পন্ডিত গঙ্গাধর পাঠক এ বিষয়ে বলেছেন, তিনি সারাদেশের মুখপাত্র হয়ে এই দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে। তার মতে, দেশের অধিকাংশ মানুষ এই গো-হত্যা নিষিদ্ধ করার পক্ষে রয়েছে। গঙ্গাধর পাঠক এও বলেছেন যে, প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীর যেমন গণতন্ত্রকে রক্ষা করে চলেছেন তেমনি আবার হিন্দু ধর্মের সেবাও করছেন। তাই একজন হিন্দু পুরোহিত হিসেবে তিনি গর্বিত বোধ করছেন।

আপনাদের জানিয়ে দিই, যে দিন ভূমি পুজো হয়েছিল সেদিন গঙ্গাধর পাঠক প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে এই দাবি রাখেন নি। কারণ সেদিন এই দাবি রাখলে পুজোর পরিবেশ নষ্ট হতে পারত। তাই পুজোর পরিবেশ যাতে নষ্ট না হয় তার জন্য পুজোর পর সংবাদমাধ্যমের কাছে এই দাবি তুলে ধরেন তিনি। পুরোহিত গঙ্গাধর পাঠক চান, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ যেমন তার রাজ্যে গো-হত্যা নিষিদ্ধ করেছেন তেমনি প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী ও যাতে সারা দেশ জুড়ে এমন আইন নিয়ে আসেন যাতে গো-হত্যা পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা যায়।

 

এছাড়াও রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর দিন তাকে প্রধান পুরোহিত হিসেবে নির্বাচিত করায় তিনি অনেক খুশি। তিনি জানান, 4 আগস্ট রাত দশটার সময় আমাকে জানানো হয় যে রাম মন্দিরের ভূমি পুজো তাকেই করতে হবে। এই সুযোগ পাওয়ায় তিনি নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে করেছেন।