পুজোর ছুটিতে একেবারে ওড়িশার অফবিট জায়গায় প্রকৃতির কোলে হারিয়ে যেতে ঘুরে আসুন সাতকোশিয়া

বর্তমানে করোনা আবহাওয়ায় বাড়িতে থাকতে থাকতে প্রায় বেশিরভাগ মানুষেরই প্রাণ ওষ্ঠাগত।তাই এবারের পুজোর ছুটিতে একটু প্রাণ ফেরাতে অনেকেই ভাবছেন কম খরচে কোথায় যাবেন।চিন্তা নেই আজকে আমরা খোঁজ দিতে চলেছি কলকাতার খুব কাছেরই জায়গায়। জঙ্গল, পাহাড়, নদী তিনটি জায়গায় রোমাঞ্চকর অনুভূতি নেবার জন্য আপনারা চলে যেতেই পারেন সুন্দরী ওরিষায়। ওরিষার কটক ও বৌধ, নয়াগড়ের অঙ্গুল জেলায় ১০০০ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে রয়েছে সুন্দর সাতকোশিয়া অভয়ারণ্য। এখানে ওড়িশার ইকো ট্যুরিজমের দৌলতে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন নেচার ক্যাম্প।

জঙ্গল, পাহাড়, নদীর রোমাঞ্চকর পরিবেশের জন্য সবথেকে এখানকার জনপ্রিয় নেচার ক্যাম্প হয়ে উঠেছে ‘টিকরপাড়া নেচার ক্যাম্প’। এই নেচার ক্যাম্প একেবারে জলঙ্গি নদীর কাছেই অবস্থিত। দুপাশে পূর্বঘাট পাহাড়ের সাথে সাথে প্রায় ২২ কিলোমিটার দীর্ঘ পথ জুড়ে বয়ে গেছে মহানদী। প্রায় সারা বছরই এই সাতকোশিয়া অভয়ারণ্য কম বেশি মানুষ জন যাওয়া আসা করে তবে সাতকোশিয়া অভয়ারণ্যে যাবার উপযুক্ত সময় শীতকাল।

১৯৭৬ সালে সর্বপ্রথম সাতকোশিয়া গর্জ স্যাঙ চুয়ারী শুরু হয়। তারপর ২০০৭ সালে সাতকোশিয়া টাইগার রিজার্ভের আওতায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়। প্রায় ৫০০ বর্গ কিলোমিটার বিস্তৃত এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে বিভিন্ন নেচার ক্যাম্প। এই অভয়ারণ্যে বসবাস হল হাতি, সম্বর, স্পটেড ডিয়ার, চৌশিঙা, বার্কিং ডিয়ার, বাঘ। কিন্ত কিভাবে যাবেন এখানে?

হাওড়া থেকে ট্রেনে চলে আসুন কটক বা অঙ্গুল। কটক থেকে প্রাইভেট গাড়ি করে টিকরপাড়ার দূরত্ব প্রায় ২০০ কিলোমিটার পথ। অঙ্গুল থেকে দূরত্ব প্রায় ৬০ কিমি। আপনি চাইলে গাড়িতেও আসতে পারেন টিকরপাড়া নেচার ক্যাম্পে। কলকাতা থেকে NH16 রোড ধরে সরাসরি বালাসোর, ভদ্রক হয়ে কটকের ১৩ কিলোমিটার আগে NH55 ধরে সরাসরি অঙ্গুল চলে আসুন। রাস্তায় সেখানে যে কাউকে জিজ্ঞেস করে নিলেই তারা আপনাকে টিকরপাড়া যাওয়ার রাস্তা বলে দেবেন। কলকাতা থেকে টিকরপাড়ার দূরত্ব প্রায় ৬০০ কিমি।

আপনি থাকবেন কোথায়?

বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে এই সময়ে আপনাকে আগে থেকে অনলাইনে থাকার জন্য বুকিং করে যেতে হবে। www.ecotourodisha.com এটি ওরিষা ট্যুরিজমের নিজস্ব ওয়েবসাইট। OFDC Nature Camp এ থাকতে হলে বুকিং করুন ওয়েবসাইটে গিয়ে।

ওখানে টেন্টে দুজনের থাকা ও খাওয়া মিলিয়ে প্রতিদিন পড়বে ৩০০০ টাকা মত। আপনি চাইলে থাকতে পারেন পাহাড়ের ঢালের কটেজে। এখানে রয়েছে পর পর ১২ টা টেন্ট। এছাড়াও রয়েছে, Chotkei Nature Camp এখানে প্রতিদিন দুজনের থাকা খাওয়া মিলিয়ে খরচা পড়বে ২৫০০ টাকা মত। এছাড়াও ওখানে পাবেন কমলাডিহাতে একবারে নব নির্মিত হিল ভিউ রিসোর্ট। সেখানে ঘরের সংখ্যা ১০ টি।

টিকরপাড়া এসে তো গেছেন কিন্তু ঘুরবেন কোথায়?
এখানে রয়েছে Dwonzhora Waterfalls এই সুন্দর জলপ্রপাতটিতে আপনাকে প্রায় ৮০০ মিটার পথ হেঁটে ট্রেকিং করে পৌঁছাতে হবে। এছাড়া মহানদীতে আপনি বোটিং করতে পারবেন। এছাড়াও আরও অনেক ঘোরার জায়গা পাবেন। সাথে পাবেন দারুণ রোমাঞ্চকর অনুভূতি সাথে প্রকৃতির বুকে হারিয়ে যাওয়ার স্বাদ।