অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন বিরাট কোহলি, টুইট করে জানালে নিজের মনের কথা

ভারতের হয়ে আর টি টোয়েন্টি ফর্ম্যাটে অধিনায়ক হিসেবে দেখা যাবেনা বিরাট কোহলি কে । এইবার বিশ্বকাপ হয়ে যাওয়ার পরে অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন কোহলি একথা তিনি ঘোষণা করেছেন। এদিন তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টে ঘোষণা করেন এই কথা। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া ওয়ালে তিনি লেখেন এবার থেকে তাঁর ফোকাস শুধু মাত্র একদিনের টেস্ট ম্যাচে। তিনি আরো বলেন এতদিন তিনি ভারতীয় দলে নেতৃত্ব দেবার জন্য তিনি সত্যিই ভাগ্যবান। বিরাট কোহলি ৮ থেকে ৯ বছর ধরে টানা তিনটি ফরম্যাটে সমানে চাপ নিয়ে খেলে যাচ্ছেন ।এছাড়া দীর্ঘ পাঁচ থেকে ছয় বছর তিনি ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব করেছেন এবং অত্যন্ত সফলতার সাথে তিনি তাঁর নিজের কাজ করে গেছেন । তবে এবার তিনি চাইছেন এত চাপ থেকে বেরিয়ে আসতে। তাই জন্য সমস্ত ফরম্যাট থেকে অধিনায়ক হিসেবে নিজেকে সরিয়ে নিচ্ছেন । এবার শুধুমাত্র টেস্ট একদিনের ম্যাচে তিনি মন দিতে চাইছেন । তবে অধিনায়কত্ব ছাড়লেন টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তিনি খেলা চালিয়ে যাবেন এ কথা স্বীকার করেছেন। বিরাট কোহলি সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টে বলেছেন “এই সিদ্ধান্ত আমি একদিনে নিতে পারিনি। অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিতে আমার বেশ কিছু সময় লেগেছে। এই বিষয়ে আমি রবি শাস্ত্রী, রোহিত শর্মার সাথেও আলোচনা করেছি । এছাড়া সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং জয় শাহ এর সাথেও এই নিয়ে বিস্তৃত আলোচনা করেছি। ”

বেশ কিছুদিন আগে থেকেই বিরাট কোহলির এরকম সিদ্ধান্ত নেবার কথা শোনা যাচ্ছিল। সীমিত ওভারের ক্রিকেট থেকে অধিনায়কত্ব ছাড়তে পারেন বলে অনেকদিন ধরেই কানা ঘুষো জল্পনা চলছিল । এবারে এই জল্পনাকে সিলমোহর দিলেন বিরাট কোহলির স্বয়ং । একজন অধিনায়ক হিসেবে তিনিই টেস্ট ম্যাচে যতটা সাফল্য পেয়েছিলেন সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সেভাবে তিনি সাফল্য কখনোই পাননি। তাঁর নেতৃত্বে বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে উঠে হারতে হয়েছিল ভারতকে । এছাড়া চ্যাম্পিয়ন্স হারতে হয়েছিল টিম ইন্ডিয়াকে। কোহলির নেতৃত্বে চ্যাম্পিয়ন ট্রফির ফাইনালে হারতে হয়েছিল ।

তবে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে কোহলির হাত ধরেই টিম ইন্ডিয়া জিতেছিল আইসিসি ট্রফি । অনেকদিন ধরেই বিরাটের নেতৃত্ব বিষয়ে অনেক রকম প্রশ্ন উঠেছে। এক প্রতিবেদনে অনেক আগে থেকেই তাঁর অধিনায়ক পথ থেকে সরে যাওয়ার কথা ইঙ্গিত এসেছিল । সেই প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর অধিনায়ক পর থেকে তিনি নিজেই সরে আসবেন ।আর এই ঘোষণার স্বয়ং কোহলি ই করে দিলেন।

Advertisements

দীর্ঘদিন ধরেই নিজের ফর্মে ছিলেননা কহলি ।তাঁর ব্যাটের হাত ধরে শতরান আসেনি টিম ইন্ডিয়ায়। ২০১৯ সালের শেষবার তিনি সেঞ্চুরি করেন। ২০১৯ এর নভেম্বর মাসেই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে গোলাপি বলে টেস্টে শত রান করেছিলেন বিরাট কহলি। এরপর থেকে তাঁর আর কোনো সেঞ্চুরির রেকর্ড নেই । বেশ কয়েকবার অর্ধশত রানের গণ্ডি পেরলেও, শতরান আসেনি তাঁর ব্যাটে।এবার থেকে বিরাট কোহলি নিজের ব্যাটিংয়ে আরো বেশি করে মন দিতে চান আর সেজন্যই তিনি অধিনায়কের পদ ছাড়তে চাইছেন।

Advertisements

একথা তিনি নিজের মুখে স্বীকার করেছেন। ভবিষ্যতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে রহিত শর্মা অধিনায়কত্ব করতে পারেন এ কথা শোনা যাচ্ছে। যদিও টেস্ট এবং ওয়ানডে ফরম্যাটেই অধিনায়কত্ব করবেন বিরাট কোহলি। তবে পরবর্তীকালে টিম ইন্ডিয়ার দায়িত্ব কাঁধে নিতে পারেন রোহিত শর্মা।