Skip to content

বিরাট-অনুষ্কার দেহরক্ষী সোনুর বার্ষিক বেতন লজ্জায় ফেলবে যেকোনো বড় বড় কোম্পানির CEO-দের

দেশের প্রত্যেক নামিদামি ব্যক্তিদের নিজস্ব একজন করে বডিগার্ড থাকে। অনেকের আবার দুই বা তিনজন করে বডিগার্ড থাকে। এই বডিগার্ড তারকাদের এতটাই মনের কাছাকাছি চলে আসেন, তারকারা বডিগার্ডদের নিজেদের পরিবারের সদস্যদের মতোই দেখেন। এখানে অবশ্যই উল্লেখ করতে পারি সালমান খানের কথা। সালমান খান নিজের বডিগার্ডকে নিজের ভাইয়ের মত করে দেখেন, তিনি নিজের বডিগার্ড শেরাকে উৎসর্গ করে একটি সিনেমাও তৈরি করেছিলেন যার নাম বডিগার্ড।

দেশের নামিদামি ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম সেলিব্রিটি জুটি হলেন অনুষ্কা শর্মা এবং বিরাট কোহলি। এই জুটিকে অনেকে বিরুস্কা নামে চেনেন।আপনি কি জানেন অনুষ্কা শর্মা এবং বিরাট কোহলির দেহরক্ষীর বেতন কত? কি নাম তার? চলুন আজ এই প্রতিবেদনে অনুষ্কা এবং বিরাট কোহলি সম্পর্কে না জেনে তাদের দেহরক্ষী সম্পর্কে কিছু বিস্তারিত তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

নিজের প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিনিয়ত বিরাট কোহলি এবং অনুষ্কাকে যে দেহরক্ষী রক্ষা করে চলেছেন তার নাম সনু। আসল নাম প্রকাশ সিং। অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মাকে নিরাপত্তা দিতে গিয়ে দীর্ঘদিন পরিবার থেকে দূরে থাকেন সনু। অনেক সময় এমনও হয়, মাসের শেষে পরিবারের কাছে শুধুমাত্র খরচ পাঠাতে পারেন তিনি। দীর্ঘ নয় বছরের বেশি সময় ধরে পুরস্কাকে নিরাপত্তা দিয়ে আসছেন প্রকাশ সিং। অনুষ্কা ছাড়াও বিরাট কোহলিকেও নিরাপত্তা দেন প্রকাশ। দেশের-বিদেশে সর্বত্র অনুষ্কা এবং বিরাটের ছায়া সঙ্গী হয়ে থাকেন প্রকাশ।

বিয়ের আগে থেকেই অভিনেত্রী দেহরক্ষী হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন তিনি তাই এক অর্থে পরিবারের অন্যতম সদস্য হয়ে উঠেছেন তিনি। অনুষ্কা প্রতিবছর জন্মদিন পালন করে থাকেন ঘটা করে। অভিনেত্রীর গর্ভাবস্থায় অভিনেত্রীকে সর্বোত্তমভাবে নিরাপত্তা দিয়েছিলেন প্রকাশ। প্রকাশের বেতনের কথা শুনলে স্বাভাবিকভাবেই চমকে উঠবেন আপনি। যেকোনো কোম্পানির সিইও কে হার মানিয়ে দেবে প্রকাশের বেতন।

সম্প্রতি একটি রিপোর্ট অনুসারে, অনুষ্কা শর্মার দেহরক্ষী প্রকাশের বেতন বার্ষিক এক কোটি ২০ লক্ষ টাকা, মাসিক হিসাব করলে যা দাড়াই ১০ লক্ষ টাকা। তারকাদের কাছে এই অর্থ হাতের ময়লা ছাড়া আর কিছুই নয়। বড় বড় তারকারা নিজেদের রক্ষা করার জন্য দেহরক্ষী রাখেন এবং তাদের মোটা টাকা অঙ্কের মাইনে দেন। অনুষ্কা এবং বিরাট কোহলি ও তাদের মধ্যে অন্যতম।