গত 70 বছরে এই প্রথমবার দেশে বিশাল নগদ সংকট দেখা দিয়েছে বিস্ফোরক নীতি আয়োগের ভাইস চেয়ারম্যান..

নতুন করে আবার আর্থিক সংস্কারের পথে না হাঁটলে সামনে কিছু বিপদ রয়েছে বলে মনে করছেন নীতি আয়োগ এর ভাইস চেয়ারম্যান রাজীব কুমার। এই বন্দা বাজারে মূল কারণ হচ্ছে নগদ সংকট। যা গত 70 বছর ধরে এরকম পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়নি বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদ। সংবাদ সংস্থা এএনআই এর রিপোর্ট অনুসারে, রাজীব কুমার বলেছেন, নগদ এর অভাবে দেশের সমস্ত আর্থিক সংস্থাগুলি টলমল করছে। গত 70 বছরে এর আগে এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়নি।

ফিকি-র প্রাক্তন সেক্রেটারি জেনারেল বলেছেন, দেশের আর্থিক বৃদ্ধির স্লথের কারণ একমাত্র অর্থনৈতিক সংস্থাগুলি। সরকার এই সমস্যাটিকে চিহ্নিত করেছেন। নগদ-শূন্যের দিকে দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা যেতে চলেছে। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কার্যকরী ভূমিকা পালন করতে হবে বলে জানিয়েছেন রাজীব কুমার। নগদ সঙ্কট নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ” কেউ কাউকে বিশ্বাস করতে পারছে না, এটি সরকারি সংস্থাগুলো বলে নয় বেসরকারি সংস্থা গুলিতেও হচ্ছে।

 

ঋণ দিতে ভরসা পাচ্ছেন না তারা।” এই সমস্যার সমাধানের কথাও উল্লেখ করেন তিনি। তিনি বলেন, ” বেসরকারি সংস্থাগুলিকে চাঙ্গা করে তুলতে সরকারকে সংস্কারের পথে হাঁটতে হবে। এর পাশাপাশি নিজেদের তাগিদে বেসরকারি সংস্থাগুলো এগিয়ে আসতে হবে। ” কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, রাজকোষ ভাঙ্গিয়ে নগদের সংকট কি আদেও মেটানো যাবে? আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে অটোমোবাইল সেক্টর গুলিতে। গাড়ির বিক্রি কমছে। উৎপাদন তো নেই বললেই চলে। বর্তমানে কয়েক লক্ষ কর্মী চাকরি নিয়ে টানাটানি হচ্ছে। সমস্ত কিছু নিয়ে মন্দা পরিস্থিতি সৃষ্টি হচ্ছে অটোমোবাইল সেক্টরে। এই সবকিছুর মাঝে গতকাল আবার দেশের মুখ আর্থিক উপদেষ্টা জানিয়ে দেন, বেসরকারি সংস্থাগুলো স্বনির্ভর হওয়ার চেষ্টা করুক। ফলে ধুকতে থাকা সংস্থাগুলির আশায় পুরো জল ঢেলে দেন তিনি। এই সমস্ত কিছুর ফলস্বরূপ গতকাল শেয়ারবাজারে পতন দেখা যায়।

এই প্রথম গত ছয় মাসে রেকর্ড বলে জানা গিয়েছে।
অপরদিকে আবার প্রাক্তন গভর্নর রঘুরাম রাজনও দেশের এই আর্থিক অবস্থা দেখে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। বিশ্ববাজারে মন্দা অর্থনীতি প্রভাব তো রয়েছে এছাড়াও ব্যাংক নয় এমন আর্থিক সংস্থাগুলিকে চাঙ্গা করে তুলতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া উচিত বলে জানিয়েছেন তিনি। তিনি এও বলেন যে, ত্রাণ প্রকল্প দীর্ঘমেয়াদি সমাধান নয়। এটি হলে রাজকোষে আরো ঘাটতি বাড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button