সাত সকালে ঘটে গেল ট্রেন দুর্ঘটনা। লাইনচ্যুত হাওড়া-পুরী ধৌলি এক্সপ্রেস..

আজ সাত সকালেই ঘটে গেলো এক মর্মান্তিক ট্রেন দুর্ঘটনা। পাঁশকুড়ার কাছে হাওড়া-পুরি ধৌলি এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত হয়ে গেল।এই ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়। তবে ঘটনায় হতাহতের এখনো পর্যন্ত কোন খবর আসেনি ঘটনাস্থলে রেলের আধিকারিকরা পৌঁছে গেছে। ঘটনাটি ঘটে ভোগপুর ও পাঁশকুড়া স্টেশন এ ঠিক মাঝামাঝি জায়গায়।এই ঘটনাটি ঘটে সকাল 07:10 মিনিটে। একটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে যাওয়ার পরই ড্রাইভার ট্রেনটিকে ব্রেক কষে দাঁড় করায়। যাত্রীদের সামান্য ঝাঁকুনি অনুভব হলেও হতাহতের এখনো কোন খবর আসেনি।তবে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়নি ওই লাইনের উপর দিয়ে যতগুলো ট্রেন যাচ্ছে খুব ধীরগতিতে যাচ্ছে।

ইতিমধ্যে রেলের আধিকারিকরা তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। এরকম ঘটনা কেন ঘটলো। তাছাড়া যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।যাত্রীদের সুবিধার্থে হাওড়া কতগুলি হেল্পলাইন নম্বর চালু করা হয়েছে। হাওড়া স্টেশনে হেল্পলাইন নম্বর হল 03326377197,খড়পুর স্টেশনের হেল্পলাইন নম্বর হলো 03222255897, এবং বালসোরের হেল্পলাইন নম্বর টি হল 06782265767।লাইনচ্যুত বগিটি কে সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চলছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে আরও বেশ কয়েক ঘন্টা সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন রেলের আধিকারিকরা।

তবে বিশাল বড় একটা বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা হয়েছে বলে জানিয়েছে রেলের আধিকারিকরা। তবে এই ঘটনার ফলে দক্ষিণ পূর্ব শাখার রেল চলাচলের কোন প্রভাব পড়েনি।যেমন অন্যান্য লাইন দিয়ে ট্রেন যায় তেমনি চলাচল করছে। দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনটি সমস্ত যাত্রীকে হাওড়া থেকে যাওয়া ফলকনুমা এক্সপ্রেস এ চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। ধৌলি এক্সপ্রেস এর যেসব স্টেশনে দাঁড়াবার কথা ছিল ওই সমস্ত স্টেশন গুলিতে এই এক্সপ্রেসটি দাঁড়াবে। তবে একের পর এক ট্রেন দুর্ঘটনার ফলে যাত্রীদের মধ্যে একটা  আতঙ্ক থেকেই  যায়। চলতি বছরে আগস্ট মাসে ইস্পাত এক্সপ্রেস হাওড়া স্টেশন এর সামনে লাইনচ্যুত হয়ে যায়। ট্রেনের একদম পিছনের বগিটি লাইনচ্যুত হয়ে গিয়েছিল।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close