Lockdown এর জেরে গ্রাহকদের সুবিধার কথা ভেবে Prepaid সার্ভিসের মেয়াদ বাড়ানোর কথা জানালো TRAI …

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে সারা দেশ জুড়ে পালিত হচ্ছে 21 দিনের লকডাউন। এই সময় জরুরী পরিষেবা ছাড়া আর কিছুই পাওয়া যাবে না বলে ঘোষণা করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। আর এই লকডাউন এর মাঝে মোবাইল গ্রাহকদের জন্য সুখবর দিল ট্রাই। কার্যত এই লক ডাউন এর সময় দোকানপাট বন্ধ থাকবে তাই গ্রাহকদের মোবাইলে রিচার্জ করাতে অসুবিধা হতে পারে। আর সেই জন্যই প্রিপেড ব্যবহারকারীদের সার্ভিসের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য বলেছে ট্রাই।

টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (Telecom regulatory authority of India) অর্থাৎ ট্রাই (TRAI) গ্রাহকদের সুবিধার কথা ভেবে নিরবিচ্ছিন্ন টেলিকম পরিষেবা প্রদান করতে কী কী পদক্ষেপ নিল ট্রাই আসুন আমরা সংক্ষেপে জেনে নিই – গত রবিবার ট্রাই-এর তরফ থেকে সমস্ত টেলিকম অপারেটরদের জানানো হয়েছে এই লকডাউন এর সময় গ্রাহকরা যাতে নিরবিচ্ছিন্ন প্রিপেড সুবিধা ভোগ করতে পারে তার জন্য তাদের বৈধতার মেয়াদ বাড়ানো হোক এবং তার সাথে সমস্ত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা প্রয়োজন।

ট্রাই এর তরফ থেকে এও বলা হয়েছে যে, 21 দিনের লকডাউনে গ্রাহকরা যাতে নিরবিচ্ছিন্ন পরিষেবা পায় সেই বিষয়টি লক্ষ্য রাখতে হবে। এর সাথে ট্রাই এও বলেছে যে, যদিও কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থাকে জরুরি পরিষেবায় মধ্যে ফেলা হয়েছে। কিন্তু লকডাউন এর ফলে গ্রাহক পরিষেবা কেন্দ্র গুলি ওপর প্রভাব পড়েছে। আর তাই এমন সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছে।ট্রাই বলেছে, যে সমস্ত গ্রাহকরা অফলাইন পরিষেবার মাধ্যমে তাদের সাথে যুক্ত অর্থাৎ যারা অফলাইনে রিচার্জ করান তাদের পক্ষে বর্তমানে রিচার্জ করানো সম্ভব হচ্ছে না।

কারণ লকডাউন এর ফলে সেই সমস্ত দোকানগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। ফলে তারা অসুবিধার মুখে পড়তে পারে। প্রসঙ্গত, 24 শে মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী করোনাভাইরাস ঠেকানোর জন্য সারা দেশজুড়ে 21 দিনের লকডাউন বলে ঘোষণা করেন। এরপরে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই লকডাউন এর সময় কোন কোন পরিষেবাগুলি চালু থাকবে আর কোন কোন পরিষেবা বন্ধ থাকবে। সারা দেশে এখনো পর্যন্ত 29 জনের প্রাণহানি হয়েছে করোনাভাইরাস এর জেরে। এবং ভারতে মোট 1071 জন এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। যেহেতু করোনা ভাইরাসে এখনো কোনো প্রতিষেধক ওষুধ তৈরি হয়নি সেহেতু একমাত্র লকডাউন এর মাধ্যমে এই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের যে গতি তা অনেকখানি মন্থন করা যাবে।

Related Articles

Back to top button