নতুন খবরলাইফ স্টাইল

এবার টেলিকম সংস্থাগুলিকে 56 লাখ টাকার জরিমানা করল ট্রাই। কারন জানেন …..

আপনি ফোনে হয়তো গুরুত্বপূর্ণ কারো সাথে কথা বলছেন। এমনকি আপনার মোবাইলে পর্যাপ্ত পরিমাণে ব্যালেন্স হয়েছে এবং চার্জও রয়েছে। তবুও হঠাৎ করে কেটে গেল কল। বর্তমান দিনে এই সমস্যার সম্মুখীন অনেকেই হচ্ছেন। এই ‘কল ড্রপের’ সমস্যা সারাদেশে অনেক মানুষের হচ্ছে। এই সমস্যার জন্য একমাত্র দায়ী পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলি। আর এই কারণেই ট্রাই বিভিন্ন টেলিকম সংস্থাগুলিকে প্রায় 56 লাখ টাকার জরিমানা করল।ট্রাই এর দেওয়া প্রায় সারা বছরের কল ড্রপের পরিসংখ্যান সহ আরো বিভিন্ন তত্ত্ব রাজ্যসভায় পেশ করেছেন কেন্দ্রীয় টেলিকম মন্ত্রী মনোজ সিনহা।

তার দেওয়া তথ্য অনুসারে দেখা যায় যে সব থেকে বেশি জরিমানা করা আছে টাটা টেলিসার্ভিস কে। তবে এমনটা খবর আসছে যে এয়ারটেল এর সাথে জোট বাঁধার পরিকল্পনা চলছে টাটার এই টেলিকম সংস্থাটি। তথ্য দ্বারা দেখা যায় যে জানুয়ারি থেকে মার্চ এবং এপ্রিল থেকে জুনের মধ্যে আইডিয়া এবং রাষ্ট্রীয় টেলিকম সংস্থা বিএসএনএলের সবচেয়ে বেশি কল ড্রপ হয়েছে। চলতি বছরের ছয় মাসে মোট 22 লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে তাদের থেকে। প্রথম তিন মাসে 10 লক্ষ টাকা এবং পরে তিন মাসে 12 লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। একইভাবে বিএসএনএল কে প্রথম তিন মাসে 2 লক্ষ টাকা এবং দ্বিতীয় তিন মাসের 4 লক্ষ টাকা অর্থাৎ মোট ছয় লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়।


শুধু এই নয় এয়ারটেলের পরিষেবা তো অসন্তুষ্ট ট্রাই। কল ড্রপের সমস্যায় তাঁদের কেউ দোষী হতে হয়েছে। এয়ারটেলকে 6 লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
টেলিকম মন্ত্রী বলেন, ” টেলিকম সংস্থাগুলিকে বারবার নির্দেশ দেওয়া সত্ত্বেও তারা কোনো সমস্যার সমাধান করেনি। বরঞ্চ সমস্যা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। আর সেই কারণে ট্রাই কে কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে হয়। তার মতে টেলিকম সংস্থাগুলিকে আরো উন্নত মানের করে তোলার জন্যই এই জরিমানা করা হয়েছে।”
তিনি আরও বলেন যে, টেলিকম সংস্থাগুলি 2015 সালের জুলাই মাস থেকে ইন্টারনেটের বিভিন্ন আধুনিক পরিষেবা দেওয়ার জন্য অতিরিক্ত 9.78 লক্ষ্যটি মোবাইল সাইট জুড়ে দিয়েছে। 2015 সাল থেকে 2018 সালের নভেম্বর মাসের শেষ দিকে বেস্ট স্টেশনের সংখ্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে 20.07 লক্ষ। তবে এখন দেখার বিষয় হল জরিমানা করার ফলে টেলিকম সংস্থাগুলি এখন ভালো পরিষেবা দেয় কিনা সেটাই।

আরো নতুন নতুন নিউজ এর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের নিউজ পোর্টালটিতে।

Related Articles

Back to top button