কলকাতানতুন খবররাজ্যলাইফ স্টাইল

আমফানের তাণ্ডব শেষ হতে না হতেই আবারও দক্ষিণবঙ্গে 5 দিন কালবৈশাখী-ভারী ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দপ্তর..

সপ্তাহের প্রথম দিন থেকেই আকাশের মুখ ভার। রবিবার সকাল কালো মেঘে আচ্ছন্ন আর সাথে বৃষ্টি। এভাবেই কেটে গেল ছুটির সকাল। যদিও লকডাউনের ফলে অধিকাংশ মানুষকে এখন বাড়িতে বসে দিন কাটাতে হচ্ছে। কিন্তু আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর বলছে আরো পাঁচ দিন থাকবে আকাশের মুখ ভার অর্থাৎ কালবৈশাখী ঝড় সহ বৃষ্টিপাত হবে দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলাগুলিতে। এর পাশাপাশি রবিবার কলকাতায় 40 কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

পূবালী হাওয়া এবং দক্ষিনী হাওয়া জেরে বঙ্গোপসাগরের সৃষ্টি হওয়া জলীয়বাষ্প ঢুকছে রাজ্যে। আর এই কারণে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলায় কয়েকদিন ধরে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাত হবে বলেও জানানো হয়েছে। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলি দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি সহ বীরভূম মালদা তেও রবিবার সকাল থেকে হালকা মাঝারি বৃষ্টিপাত শুরু হয়ে গেছে।

শুধু তাই নয় আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে,অসম, মিজোরাম, ত্রিপুরা, অরুণাচল প্রদেশ, নাগাল্যান্ড, মণিপুর এই সমস্ত জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। আজ সকাল থেকে আকাশের মুখ ভার ছিল তাই কিছুটা হলেও গুমোট পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। কিন্তু মাঝে মাঝে বৃষ্টিপাত হওয়ার ফলে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। গতকাল কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল 33 ডিগ্রী সেলসিয়াসের কাছাকাছি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল 27 ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। তবে আজকের তাপমাত্রার পরিবর্তন হবে বলে জানানো হয়েছে।

আজকের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা হবে 34 ডিগ্রির কাছাকাছি এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা হবে 27 ডিগ্রির কাছাকাছি। সন্ধ্যের দিকে বজ্রপাতসহ ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। যদিও গরম বাড়া নিয়ে আবহাওয়াবিদরা আগেই জানিয়েছিলেন। আবহাওয়াবিদরা আগেই জানিয়েছিলেন যে এ বছরে গরম বাড়বে। এমন কী অধিকাংশ অঞ্চল গুলিতে স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রী সেলসিয়াস করে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে বলে জানিয়েছিল আবহাওয়া দফতর। এবং এও জানিয়েছিলেন যে কিছু কিছু অঞ্চলে 1 ডিগ্রির বেশি তাপমাত্রা বাড়বে।

পরে তাপমাত্রার পারদ উঠানামা করবে। এর ফলে মাঝে মাঝে তাপমাত্রা বাড়বে আবার কমবেও। একটানা অনেকদিন ধরে গরম থাকবে না এবারে। যখনই দীর্ঘদিন ধরে তাপমাত্রা বৃদ্ধির হবে তারপরেই বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা থাকবে। আর বলা বাহুল্য যে আবহাওয়াবিদদের এই তথ্য এখন পুরোপুরি ভাবে মিলে যাচ্ছে।

Related Articles

Back to top button