ছেলেকে ক্রিকেটার বানাতে নিজের ব্যবসা পর্যন্ত বিক্রি করতে হয়েছিল, আজ সেই ছেলে ২০ কোটি টাকার মালিক

একজন বাবার স্বপ্ন যে, তিনি যাতে তার সন্তানদের নিজ চোখে সফল হতে দেখতে পারেন। এর জন্য বাবা তার সমস্ত সম্পত্তি ব্যয় করতে রাজি হন। এমনই গল্প শিবম দুবের, যে খেলোয়াড় টাটা আইপিএলে তাঁর ব্যাটিংয়ের মাধ্যমে সবাইকে অবাক করে দিয়েছিলেন এবং যাঁর বাবা তাঁকে ক্রিকেটার বানানোর জন্য সমস্ত সম্পত্তি ব্যয় করেছিলেন।


শিবম দুবে যখন ছোট ছিলেন, তখন তাঁর বাবা তাঁর ক্রিকেটার হওয়ার যোগ্যতা বুঝতে পারেন এবং প্রাথমিকভাবে শিবমকে বাড়িতে একটি স্টাম্প লাগিয়ে ক্রিকেট অনুশীলন করাতে শুরু করেন এবং ধীরে ধীরে শিবমকে এতটা আত্মবিশ্বাস দেন যে, শিবম যাতে নিজের যোগ্যতাকে বুঝতে পারেন। শিবম দুবে বলেন যে, তাঁর বাবা যখন তাঁকে অনুশীলন করাতেন, তখন তিনি সারাদিনে ৫০০টিরও বেশি বল করতেন।

তাঁর বাবা তাঁর জন্য বিশেষ ডায়েট তৈরি করতেন, তাঁকে ম্যাসাজ করতেন এবং তাঁকে দৌড়াতে ও ব্যায়াম করার প্রশিক্ষণ দিতেন, কিন্তু শিবম দুবে এবং তাঁর বাবা রাজেশ দুবের জন্য একটি সময় এসেছিল, যখন শিবম দুবের বাবাকে তাঁর ছেলেকে ক্রিকেটার বানানোর জন্য নিজের ব্যবসা বিক্রি করতে হয়। যার কারণে তাঁর পুরো পরিবারকে দীর্ঘ সময়ের আর্থিক সংকটের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছিল।


শিবম দুবে যেদিন ভারতীয় ক্রিকেট দলে যোগ দেন, সেদিন তাঁর বাবার সমস্ত পরিশ্রম সার্থক হয়ে যায়।শিবম বলেন যে, এই দিনটি ছিল তাঁর জীবনের সবচেয়ে বড় এবং স্মরণীয় দিন। এই দিনে তাঁর খুশির সীমা ছিল না, কারণ এই দিনে তিনি শুধু সফল হননি, তাঁর বাবার বছরের পর বছরের পরিশ্রমও সফল হয়েছিল।