ভাইরাল ভিডিওঃ সেনার হাত মুচড়ে নেওয়ার হুমকি দিলেন তৃণমূলের সভাপতি, মঞ্চে বসে হাততালি দিলেন সাংসদ দেব!

যত লোকসভা ভোটের দিন আসছে তত একে অপরকে আক্রমণ করছে সমস্ত দলের নেতারা। লোকসভা ভোটের প্রচার করতে গিয়ে বিরোধীদের সম্পর্কে অশ্লীল মন্তব্য করছেন তৃণমূলের নেতারা। শুধু বিরোধী নেতাদের নয়, কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে অপমান সূচক কথা বলে নানান বিতর্ক সৃষ্টি করছে তৃণমূল নেতারা। কোচবিহারের তৃণমূল জেলা সভাপতি রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেছিলেন, ” কেন্দ্রীয় বাহিনী কত দিন থাকবে? কেন্দ্রীয় বাহিনী একদিন না একদিন চলে যাবে। কিন্তু আমরা থেকে যাবো।” উনার এই বক্তব্যের পর স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে এলাকার ভোটার এবং বিরোধীদের ভোটের পর কেন্দ্রীয় বাহিনী চলে গেলে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন।

এবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার অন্তর্গত ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী দীপক অধিকারী (দেব) এর পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল সভাপতি অজিত মাইতি কেন্দ্রীয় বাহিনীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে একথা বলেন। অজিত মাইতি এখানে চুপ থাকেননি তিনি কেন্দ্রীয় বাহিনীর হাত মুচড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন। ভারতীয় সেনাকে এইভাবে হুমকি দেওয়ার পরেও দেশের বর্তমান সাংসদ উনার বিরোধীতা না করে উল্টে মঞ্চের মধ্যে জোরে জোরে হাততালি দেয় এবং হাসতে থাকেন। তৃণমূল জেলা সভাপতি এবং তৃণমূল সাংসদের এমন আচরণে স্পষ্ট বোঝা যায় যে তারা দেশের সেনাদের সম্মান করেন না। সেনাদের যদি সম্মান করতেন তাহলে এহেন মন্তব্য করতেন না তিনি। যে সেনারা দেশকে রক্ষা করার জন্য দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে, এমনকি নিজের জীবনের পরোয়া না করে শত্রুদের সাথে লড়ে যাচ্ছে তাদেরকে নিয়ে এমন মন্তব্য করাটা কি আদেও সমর্থনযোগ্য হচ্ছে?

বিরোধী দলের সম্পর্কে মন্তব্য করা এটা মানা যায় কিন্তু দেশে সেনাদের হুমকি দেওয়া বা অপমান করা এটা কিছুতেই মানা যায় না। দেশের সেনাদের নিয়ে কেন রাজনীতি? এবার দেখার বিষয় হলো দেশের সেনাদের নিয়ে এহেন মন্তব্যের পর নির্বাচন কমিশন কি পদক্ষেপ নেয়।