দেশনতুন খবররাজনৈতিকরাজ্য

এই বছরই তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত পশ্চিমবঙ্গ সরকার ভেঙে যাবে, দাবি রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের।

তৃণমূল কংগ্রেস দলকে নিয়ে এবার পড়া মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, এই বছরের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত পশ্চিমবঙ্গ সরকার ভেঙে যাবে। শুক্রবার বারাসাতে সাংবাদিক বৈঠকে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এমন মন্তব্য করেন দিলীপ ঘোষ। তিনি আরো জানান যে এর পেছনে সব থেকে বড় ভিত্তি ছিল তৃণমূলের দাপুটে নেতা অর্জুন সিং এর। এই অর্জুন সিং বর্তমানে এখন বিজেপি নেতা। এই সপ্তাহের বৃহস্পতিবার দিল্লিতে গিয়ে গেরুয়া দলে নাম লিখিয়েছেন অর্জুন সিং। অর্জুন সিং এর দলবদল কে ঘিরে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে তৃণমূলের যুবনেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, বারাকপুরে অর্জুন সিং দাঁড়ালেও দীনেশ ত্রিবেদী 2 লক্ষ ভোটে জিতবেন। দীনেশ ত্রিবেদী কে জেতানোর দায়িত্ব তিনি নিজের ওপর নিয়ে নিয়েছেন।

অর্জুন সিং এর দলবদল করা 24 ঘন্টার মধ্যে একাধিক বার এই দাবি করেছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। মুকুল রায়ের দলবদল করা নিয়ে কটাক্ষ করেছেন অভিষেক। অভিষেকের এরকম বক্তব্যে পর জবাব দিয়েছেন বঙ্গ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষ এনিয়ে বলেন, ‘ তৃণমূল দলটা তো অন্য দল ভাঙিয়ে তৈরি হয়েছে।’ দীনেশ ত্রিবেদী দু’লক্ষ ভোটে জেতার ভবিষ্যৎ বাণী নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন,’ ভোটের পর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কোথায় থাকবে আগে তিনি সেটা ভেবে রাখুন।’ দিলীপ ঘোষের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতি আক্রমণ এখানেই শেষ হয়ে যায়নি। তিনি আরও বলেছেন, ‘ এখনো চমক দেওয়া বাকি আছে। আগামী 15 দিনের মধ্যে ইট-বালি-সিমেন্ট সব আলাদা আলাদা করে দেবো আমরা। ডিসেম্বরের মধ্যে এই সরকার আর দেখতে পাবেন না। ‘ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের মুখে যেই সুর শোনা গেছে সেই একই সুর শোনা গিয়েছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা মুকুল রায়ের গলাতেও।

গত মাসে দিল্লিতে তৃণমূলের প্রাক্তন নেতা শঙ্কুদেব পান্ডা বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর রাজনৈতিক মহলে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। এরপর মুকুল রায় বলেছিলেন, ‘ আগামী লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল 20 টির বেশি আসন পাবে না। এরপর হেরে যাওয়া আসনে তৃণমূল বিধায়ক এরা সবাই বিজেপি পার্টিতে যোগদান করবে।’ এরপর মুকুল রায় দাবি করেন, ‘ এই প্রতিক্রিয়াতে 2019 সালের মধ্যে বাংলা তৃণমূল কংগ্রেসের সরকারের কোন অস্তিত্ব থাকবে না।’

Related Articles

Back to top button