এবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ, স্বয়ং থানায় গেলেন আইপিএস অফিসার

বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার অনেকবারই সংবাদের শিরোনামে এসেছেন রাজ্যের সুশাসক হওয়ার জন্য। এ পাশাপাশি তিনি স্বচ্ছতার প্রতীক হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। তেজস্বী যাদব (Tejaswi Jadhav) সহ অনেকেই বারবার এই মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ এনেছেন। তবে এবার নীতীশ কুমারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি বিরোধী দলের কোনো নেতা নন খোদ সরকারি আমলা। এক আইপিএস অফিসার নিতিশ কুমার এবং তাঁর দলের ছোট বড় নেতাদের নামে অভিযোগ দায়ের করেছেন পুলিশের কাছে।

১৯৮৭ সালের আইপিএস ব্যাচের ক্যাডার ছিলেন এই সুধীর কুমার (Sudhir Kumar)। চাকরির বয়স রয়েছে আর মাত্র এক বছর। তবে এই আইপিএস অফিসারের চাকরি জীবনটা বেশ স্বচ্ছ নয়। এক দুর্নীতিতে তার নাম জড়ানোর জন্য তিনি তিন বছর কারাবন্দী ছিলেন। আদালতের রায় এখন তিনি মুক্ত।

শনিবার দুপুরে নিজের স্বীকৃতি পত্র পাওয়ার জন্য গরদানিবাগ থানায় পৌঁছান তিনি। ৪ ঘন্টা তাঁকে অপেক্ষা করতে হয় তাই তিনি নিজের ক্ষোভ উগরে দেয় পুলিশ কর্মীদের উপর। প্রথমেই তিনি অভিযোগকারীর তালিকায় থাকা কোনো ব্যাক্তির নাম না জানালেও সাংবাদিকদের জড়াজড়িতে তিনি অভিযোগে কাঠগড়ায় দাঁড় করান স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারকে। তাঁর তালিকায় নিতিশ কুমার ছাড়াও আর কতজন ব্যক্তি রয়েছে তার সংখ্যা জানাতে তিনি রাজি হননি। এই আইপিএস অফিসার জানিয়েছেন নিতিশ কুমারের সমস্ত জালিয়াতির প্রমাণপত্র রয়েছে তাঁর কাছে। বিরোধী দলনেতার তেজস্বী যাদব জানিয়েছেন যে এই আইপিএস অফিসারকে যেনো সুরক্ষার ব্যবস্থা করা হয়।

সুধীর কুমারের এই অভিযোগের পর রাজ্য রাজনীতিতে এক শোরগোলের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই মনে করছেন এই আইপিএস অফিসারের অভিযোগটি যথেষ্ট অস্বস্তিতে ফেলবে রাজ্য সরকারকে। তবে কোন কোন ক্ষেত্রে জালিয়াতি রয়েছে সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানাননি এই আইপিএস অফিসারটি।