এবারে স্কুল স্তরেই যৌনশিক্ষা’-কে নতুন পাঠক্রম হিসাবে প্রাধান্য দিতে চলেছে কেন্দ্র সরকার….

শিক্ষা ক্ষেত্রে এবং এর পাশাপাশি আমাদের সমাজে পরিবর্তন আনার জন্য আরও একটা দারুণ পদক্ষেপ নিল কেন্দ্র সরকার।স্কুল স্তরে যৌনশিক্ষা চালু করার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করে কেন্দ্রসরকার। বয়ঃসন্ধি কালে শারীরিক পরিবর্তন থেকে শুরু করে (HIV) এইচআইভি প্রতিরোধ, যৌন সংক্রামক ব্যাধি সম্পর্কে সচেতন করাই এর প্রধান উদ্দেশ্য। শুধু তাই নয় নারী- পুরুষের মিলনের বিজ্ঞানসম্মত দৃষ্টিভঙ্গি সম্পর্কে জানানো এর প্রধান উদ্দেশ্য।

সমস্ত স্কুলে যৌনশিক্ষা চালু করার জন্য যৌথভাবে উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক এবং কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। 12 ই ফেব্রুয়ারি এই সম্পর্কে বৈঠক করা হয় বলে জানা গিয়েছে। এই বৈঠকে ঠিক করা হয়েছে, ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের জন্য যৌনশিক্ষার মডিউল তৈরি করা হবে। আজ থেকে প্রায় বছর তেরো আগে যৌনশিক্ষা চালু করার জন্য উদ্যোগী হয়েছিল বর্তমান রাজ্য সরকার। এরপর পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্তি হয়েছিল ‘জীবনশৈলী’।

তবে সেই সম্পর্কে বহু তর্ক-বিতর্ক সৃষ্টি হওয়ায় এই প্রক্রিয়া মাঝপথে বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় সরকার। কারন শিক্ষকরা কিভাবে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে এনিয়ে পড়াবেন সেই সম্পর্কে কোন গাইড লাইন ছিল না তাদের কাছে।  সাধারণত বয়সন্ধিকালেই ছেলে মেয়েদের যৌনতা বিষয়টি নিয়ে নানান আগ্রহ সৃষ্টি হয়। সেই সময় আবার অনেকের মনে এই নিয়ে ভুল ধারণা সৃষ্টি হয়। সুতরাং এই বিষয়টি কতটা সংবিধান সিলভের ছাত্র-ছাত্রীদের সামনে তুলে ধরা হবে তা নিয়েই চলছে আলোচনা।

প্রাথমিকভাবে খবর পাওয়া গেছে, সিলেবাসের বাইরে বেরিয়ে এই যৌনশিক্ষার ক্লাস হবে 24 সপ্তাহ। শিশু দের কমিকস বই, নাটক, গ্রুপ ডিসকাশন এর মাধ্যমে পড়ুয়াদের স্বচ্ছ ও বিজ্ঞানসম্মতভাবে ধারণা দেওয়া হবে এ বিষয়ে। এই পাঠ্যক্রমে 11টির বেশি মডিউল দেওয়া থাকবে। যেখানে দুটি মানুষের ঘনিষ্ঠতার প্রতি কি কি স্বাস্থ্যকর ইতিবাচক দিক হতে পারে সেই সম্পর্কে জ্ঞান দেওয়া হবে। শুধু তাই নয় পরস্পরকে কিভাবে সম্মান দিতে হয় সেই শিক্ষাও দেওয়া হবে ওই মডিউলে। যৌনতা নিয়ে সমাজে যে বিকৃতি চলছে, সেই বিষয়েও সচেতন করা হবে পড়ুয়াদের।

ধর্ষণ, নারী নির্যাতন এই সমস্ত দিছো কতটা ঘৃণ্য অপরাধ সে সম্পর্কে শিশুদের জানানো। কেন্দ্রীয় সরকারের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন শিক্ষকেরা। এর পাশাপাশি, যৌন সংক্রামক ব্যাধি সম্পর্কে, মেয়েদের ঋতুচক্র, নারী স্বাস্থ্য সম্পর্কে ওই ক্লাসগুলোতে পড়ুয়াদের ধারণা দেওয়া। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, স্কুল স্তরে যৌনশিক্ষা চালু করা খুবই জরুরী বর্তমান সমাজের উন্নতির জন্য।

Related Articles

Close