একসময় করতেন ৪৫ টাকার বেতনের চাকরি, আজ তৈরি করেছেন ১০,০০০ কোটি টাকার ব্যবসা

শিক্ষক শব্দটি যখন আমরা উচ্চারণ করি তখনই আমাদের চোখের সামনে শৃঙ্খলা, ভদ্রতা, স্কুল, ছাত্র বই এবং সরলতার মতো কিছু ছবি চোখের সামনে ভেসে ওঠে। আজ তেমনই একজন শিক্ষকের কথা আমরা বলতে চলেছি। লক্ষণ রাও কাশীনাথ কিলস্করের কথা আজ আমরা আলোচনা করব, যিনি শুধুমাত্র বিদ্যালয়ে নিজের শিক্ষা সীমিত রাখেননি।

এক সময় মাত্র ৪৫ টাকা বেতনে কাজ করা এই শিক্ষক দশ হাজার কোটি টাকার ব্যবসা দাঁড় করিয়েছিলেন শুধুমাত্র নিজের বুদ্ধির দ্বারা। এই শিক্ষক বিশ্বাস করতেন এগিয়ে যেতে হলে চিন্তাটা বড় করতে হবে, অর্থ না থাকলেও চলবে। লক্ষণ রাও ১৮৬৯ সালে ২০ জুন মহারাষ্ট্রের একটি ছোট্ট গ্রাম গুরলাউসুরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। ছোটবেলা থেকে তিনি পড়াশোনা করতে একদমই ভালোবাসতেন না। স্কুল অফ আর্ট থেকে তিনি যান্ত্রিক অঙ্কন শিখেছিলেন। পড়াশোনা শেষ করে মুম্বাইয়ের ভিক্টোরিয়া জুবিলী টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউটে শিক্ষক হন তিনি।

১৮৮৮ সালে ভাই রম্যান্নুয়ার সাথে মিলিত হয়ে কিলস্কর ব্রাদার্স নামে একটি সাইকেলের দোকান খোলেন। চাকরি ছেড়ে দিয়ে তিনি পশু খাদ্য কাটার মেশিন এবং লোহার লাঙ্গল তৈরি করার একটি ছোট কারখানা শুরু করেন। কারখানা চালু হওয়ার পর আস্তে আস্তে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য যুদ্ধ শুরু করেন তিনি। প্রথম প্রথম লোহার লাঙ্গল বিক্রি করতে ভীষণ কষ্ট হতো। তবে দুই বছর পর কঠোর পরিশ্রমের ফলাফল স্বরূপ তার কোম্পানি ২.৫ মিলিয়ন ডলারের বেশি অর্থ উপার্জন করেন প্রতিবছর।

১৮৮৮ সালে শুরু হওয়া এই কোম্পানির নাম ছিল কিলোস্কার ব্রাদার লিমিটেড। লক্ষণ রাও কিলস্কোরের নেতৃত্বে এই কোম্পানি ঐতিহাসিক সাফল্য পায়। বর্তমানে কিলস্কর গ্রুপ ভালভ, পাম্প ইঞ্জিন কম্প্রেসারের প্রকৌশল এবং উৎপাদনে নিযুক্ত রয়েছে। বর্তমানে এই কোম্পানিতে নিযুক্ত রয়েছেন ২৮ হাজার কর্মচারী। কোম্পানির মোট আয় বর্তমানে ২.৫০ বিলিয়ন ডলারের বেশি।