এই প্রথম নয় এর আগেও নিজের সুরিলা কন্ঠে দর্শকদের মন জিতেছিলেন বাংলার মেয়ে অরুনিতা, রইল ভাইরাল ভিডিও

এই প্রথম নয় এর আগেও নিজের সুরিলা কন্ঠে দর্শকদের মন জিতেছিলেন বাংলার মেয়ে অরুনিতা, রইল ভাইরাল ভিডিও বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলেই সবথেকে বেশি ভাইরাল ভিডিও ও ফটো দেখা যাচ্ছে সেটি হল এবারের ইন্ডিয়ান আইডল ১২ এর। এবারের প্রতিযোগিতা দারুণ হয়েছিল। যে কজন সেখানে উপস্থিত ছিল এ বলে আমায় দেখ তো ও বলে আমায় দেখ। তবে সবথেকে এবারে বেশি চর্চায় থাকা দুজনের নাম হল বাংলার মেয়ে অরুনিতা ও পাহাড়ের কোলের ছোট্ট একটি গ্রামের ছেলে পবনদীপ। দুর্দান্ত সব পারফরমেন্সে জিতে নিয়েছে দুজনেই দর্শকদের সাথে গোটা দুনিয়ার মন। তবে আজ কথা বলবো বাংলার মেয়ে অরুনিতাকে নিয়ে।

পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁ থেকে সুদূর মুম্বইয়ে গিয়ে যে গোটা বলিউড কাঁপিয়ে এলো সেই অরুনিতাকে প্রথম দিন থেকেই সবাই দুর্দান্ত সাপোর্ট করে গেছিল। তবে এবারে ইন্ডিয়ান আইডলে প্রথম স্থান পেয়েছে উত্তরাখন্ডের ছেলে পবনদীপ রাজন। এবং দ্বিতীয় স্থান পেয়েছে বনগাঁ এর মেয়ে অরুনিতা কাঞ্জিলাল। দ্বিতীয় স্থান পেলেও অরুনিতার সুরেলা কন্ঠে মন কেড়ে নিয়েছে বিচারক সহ গোটা বাংলার লক্ষ লক্ষ মানুষের।

খুব সামান্য মধ্যবিত্ত ঘরের মেয়ে অরুনিতা। বাবা একজন স্কুল শিক্ষক। খুব ছোট বয়সেই অরুনিতার হাতে খড়ি হয় হারমোনিয়ামের সাথে। সেই তখন থেকে আজও ইচ্ছা একটাই গায়িকা হওয়ার। শুধু একা অরুনিতা নয় পাশাপাশি তার মা এর একই ইচ্ছা ছিল মেয়েকে একজন গায়িকা করে তোলার।

তার গানের জীবনের প্রথম শিক্ষক তার মামা। দীর্ঘদিন মামার কাছে গানের প্রশিক্ষণ নিয়েছিল অরুনিতা। শুধু গান নয় একজন ছাত্রী হিসাবেও অরুনিতা ভীষণ ভালো। সেন্ট জেভিয়ার্স স্কুলে পড়াশোনা করেছে অরুনিতা। পরবর্তী কালে স্বনামধন্য রবীন্দ্র গাঙ্গুলির কাছে সঙ্গীতের প্রশিক্ষণ নেয় অরুনিতা। অন্যান্য বারের তুলনায় এবারের ইন্ডিয়ান আইডল মন কেড়েছে দর্শকদের। পবনদীপ ও অরুনিতার একটি সুন্দর প্রেম কাহিনী দর্শকদের কাছে তুলে ধরেছিল ইন্ডিয়ান আইডল। সেই কারণে মানুষ আরও বেশি পছন্দ করেছে এবারের ইন্ডিয়ান আইডল। তার সাথে প্রতিটি এপিসোডে একের পর এক দুর্দান্ত সব পারফরমেন্সে জিতে নিয়েছে অরুনিতা দর্শকদের মন।

 

সম্প্রতি এই স্বাধীনতা দিবস এর দিনেই দুর্দান্ত ১২ ঘন্টা ধরে ইন্ডিয়ান আইডল এর গ্র্যান্ড ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে একের পর এক নানা ধরনের গানে অরুনিতা কেড়ে নিয়েছে দর্শকদের মন। তবে এই প্রথম তার রিয়ালিটি শো-এ আসা নয় এর আগেও একবার তার সুরেলা কন্ঠে মন কেড়ে নিয়েছিল দর্শক সহ বিচারকদের। ২০১৩ সালে সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পসের মঞ্চে সে এসেছিল একজন প্রতিযোগি হয়ে।