Indian Bank-Allahabad Bank এর সংযুক্তিকরণের পর জারি একাধিক নতুন নিয়ম, না জানলে পড়তে পারেন বড় সমস্যায়

পুরনো ব্যাঙ্কগুলির মধ্যে এলাহাবাদ ব্যাঙ্ক অন্যতম। ঐতিহ্যবাহী রাষ্ট্রায়ত্ত এই ব্যাঙ্কটির কঅলকাতা শাখার উপরেও সংযুক্তিকরণের থাবা পড়েছে। দেড়শো বছরেরও বেশি পুরনো এলাহাবাদ ব্যাঙ্কের স্বতন্ত্র অস্তিত্ব মুছে  তাকে ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কের সঙ্গে মিলিয়ে এক করে দিয়েছে (Allahabad Bank merger with Indian Bank) কেন্দ্রীয় সরকার। ২০২০ এর ১ এপ্রিল দুই ব্যাঙ্কের সংযুক্তিকরণ কার্যকর হয়েছে। কিন্তু ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে বেশ কিছু নতুন নিয়ম চালু হয়েছে। এই নিয়ম আগে থেকে যারা  এলাহাবাদ ব্যাঙ্কের গ্রাহক তাদেরকে প্রভাবিত করবে।

 

সংযুক্তিকরণের ফলে এলাহাবাদ ব্যাঙ্কের শাখাগুলির নাম বদলে ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কের শাখা হয়েছে। এলাহাবাদ ব্যাঙ্কের গ্রাহকরা খাতায় কলমে এখন ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কের গ্রাহকে পরিণত হয়েছেন। স্বাভাবিকভাবেই বদলে গিয়েছে বিভিন্ন  তথ্য। তবুও এতদিন পর্যন্ত পরিষেবা ক্ষেত্রে পুরনো গ্রাহক তথ্য দিয়েই প্রায় সব কাজ চলছিল। কিন্তু ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে চালু হয়েছে নতুন নিয়ম।

এলাহাবাদ ব্যাঙ্কের CBS/ITMS সফটওয়্যারকে বদলে ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কের CBS/ITMS এর সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে। আগের সপ্তাহের শেষ দিকে এই কাজ সম্পন্ন হয়। এর ফলে পূর্বতন এলাহাবাদ ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের IFSC কোড বদলে গেছে৷  নতুন IFSC কোডের শুরুতে  ‘IDIB….’ রয়েছে। ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছে নতুন এই কোড।  এছাড়া এলাহাবাদ ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের মোবাইল ব্যাঙ্কিং, ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, চেকবুক ও পাসবুকে পরিবর্তন হয়েছে৷

ক্রমশ চড়ছে তাপমাত্রার পারদ, আজ থেকে একাধিক জেলাতে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস! তালিকায় উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলা

এক ব্যাঙ্ক থেকে অন্য ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করার ক্ষেত্রে IFSC কোড লাগে। ন্যাশনাল ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার (NEFT) এবং রিয়েল টাইম গ্রস সেটেলমেন্ট (RTGS) প্রক্রিয়ায় এক অ্যাকাউন্ট থেকে অন্য অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো যায়৷ এই  ক্ষেত্রে IFSC কোড উল্লেখ করা বাধ্যতামূলক। তা না হলে টাকা ট্রান্সফার করা যায় না।  IFSC-র মাধ্যমে কোনও ব্যাঙ্কের কোন শাখায় গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট রয়েছে তা জানা যায়। তাই ব্যাঙ্কের নাম বদলেছে বলে পুরনো কোড দিয়ে চলবে না কাজ৷