একবার ফুল চার্জে ৭ মাসের জন্য নিশ্চিত, একদম শূন্য খরচে করতে পারবেন ভ্রমণ

বর্তমান সময়ে মূল্যস্ফীতি যেভাবে বাড়ছে তাতে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম আকাশচুম্বী, যার কারণে মানুষের পক্ষে গাড়ি চালানো খুব কঠিন হয়ে পড়েছে এবং এখন মানুষ পেট্রোল ও ডিজেল গাড়ির পরিবর্তে বৈদ্যুতিক যানবাহন চালানোর দিকে বেশি জোর দিচ্ছে, তবে বৈদ্যুতিক যানবাহন ব্যবহার করাও বেশ কঠিন। পেট্রোল এবং ডিজেল গাড়ির মতো, বৈদ্যুতিক গাড়ির জন্য জায়গায় জায়গায় চার্জিং পয়েন্ট নেই।

যার কারণে বৈদ্যুতিক যান ব্যবহারেও সমস্যায় পড়তে হচ্ছে মানুষকে, কিন্তু এখন এমন একটি বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরি করেছে একটি কোম্পানী, যা একবার চার্জ করার পর ৭ মাস ব্যবহার করা যাবে। যার কারণে আপনার খরচ শূন্য হবে। এই গাড়ির নাম লাইট ইয়ার জিরো। যেটি তৈরি করেছে স্টার্টআপ কোম্পানী লাইটইয়ার। লাইটইয়ার কোম্পানী একটি ভিন্ন এবং অনন্য গাড়ি তৈরি করতে সফল হয়েছে। এই গাড়িটি একবার চার্জ দিলে ৭ মাস চালানো যাবে।


২০১৬ সালে নেদারল্যান্ডসে পাঁচজন মিলে লাইটইয়ার কোম্পানী শুরু করেন। এই কোম্পানীতে পাঁচ শতাধিক কর্মী রয়েছে। যদিও কোম্পানীটি তার প্রথম পণ্যে প্রায় ৯৪৯টি বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরি করেছে। লাইটইয়ার কোম্পানী বলছে যে, দেশে সবচেয়ে বেশি রোদ থাকে। এই গাড়িটি একবার চার্জ দিলে কয়েক মাস ব্যবহার করা যাবে, কারণ এই গাড়িটি সৌরশক্তিতে চলে। তাই একে বিশ্বের প্রথম সোলার কারও বলা যেতে পারে।

যেসব দেশে সূর্যের আলো কম, সে দেশে এই গাড়িটি একবার চার্জে ২ মাস চালানো যাবে। এই গাড়িটি একদিনে ৩৫ কিলোমিটার পর্যন্ত চালানো যাবে। এই গাড়িটির বিশেষত্ব হল এটি এক চার্জে ৬২৫ কিলোমিটার পর্যন্ত চালনা করা যায়। এই গাড়ি হাইওয়েতে ঘণ্টায় ১১০ কিলোমিটার বেগে চলে। এই গাড়ির আনুষ্ঠানিক বিক্রয় ২০২২ সালের নভেম্বর থেকে শুরু হবে। লাইট ইয়ার জিরো গাড়ির সাথে কোম্পানীটি গ্রাহকদের জন্য ১ কিলো ওয়াট আওয়ারের চার্জার দিয়েছে। এই গাড়িটি ১ ঘন্টা চার্জে ১০ কিমি এবং পুরো দিন চার্জে ৭০ কিমি চালনা করা যায়।