সপ্তাহে 4 দিন কাজ, 3 দিন ছুটি! সত্যিই কী জুলাই মাস থেকে লাগু হচ্ছে দেশজুড়ে নতুন নিয়ম

খুব শীঘ্রই আসতে চলেছে চাকরির বাজারে বড় একটি পরিবর্তন। অন্তত তেমনই একটি ইঙ্গিত পাওয়া গেল সম্প্রতি। আগামী মাস থেকেই নতুন শ্রম আইন লাগু করতে চলেছে কেন্দ্র এবং যার ফলে পাল্টে যেতে পারে বহু শ্রমিকের জীবন। যদি সত্যিই এই নতুন শ্রম আইন কেন্দ্র লাগু করতে পারে সে ক্ষেত্রে কর্মীদের কাজের সময়, ইপিএফ এ বিনিয়োগ এবং টেক হোম স্যালারিতে প্রভাব পড়বে অনেকাংশে। জানা গেছে, কেন্দ্র খুব তাড়াতাড়ি এই আইনকে লাগু করতে চলেছে। একাধিক রিপোর্ট অনুযায়ী, আগামী মাস থেকে এই নতুন সুদের হার লাগু করা হবে, যদিও কেন্দ্রের তরফ থেকে এখনো কিছু জানা যায়নি।

কি কি পরিবর্তন হতে পারে?

মনে করা হচ্ছে, নতুন শ্রম আইন পাস করা হলে চাকরিজীবীদের কাজের সময়, মাহিনের ওপর প্রভাব পড়তে চলেছে। নতুননিয়ম অনুযায়ী কর্মীরা সপ্তাহে তিন দিন ছুটি নিতে পারবে। তবে তিন দিন ছুটি থাকলেও সাপ্তাহিক কাজের সময় নিয়ে কোন পরিবর্তন হবে না। তবে নতুন নিয়ম পাস করা হলে যেকোনো কর্মীকে প্রত্যেকদিন ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজ করতে হবে সপ্তাহে চারদিন। নতুন শ্রম আইনে ওভারটাইমের নিয়মে পরিবর্তন আনা হচ্ছে। তিন মাসে ওভারটাইমের সময় ৫০ ঘণ্টা থেকে বাড়িয়ে ১২৫ ঘন্টা করা হবে।

বেতনের উপর কি প্রভাব পড়তে চলেছে?

নতুন শ্রম আইনের ফলে টেক হোম স্যালারি এবং ইপিএফ অবদানের রেশিওতে পরিবর্তন আসবে। নতুন শ্রম আইনের প্রস্তাবে বলা হয়েছে, কর্মীর মূল বেতন হবে মোট বেতনের ৫০ শতাংশ। অর্থাৎ কর্মীর ইপিএফ অবদান এর পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। উল্টোদিকে টেক হোম স্যালারির পরিমাণ অনেকটাই কমে যাবে। বিশেষ করে যে সমস্ত কর্মীরা প্রাইভেট সেন্টারে কর্মরত তাদের স্যালারি কমবে বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে কর্মীরা অবসর নেবার সময় অনেক বেশি অর্থ পাবেন। চাকরি থেকে কর্মীরা অবসর নেবার পর যাতে সঠিকভাবে জীবনযাত্রা অতিবাহিত করতে পারেন তার জন্য এখন থেকে এই নিয়ম লাগু করা হচ্ছে।