শুধু বাদাম নয় এই ৫ টা জিনিস ভিজিয়ে খেলে শরীরে বাড়ে রক্ত, হয় না প্রোটিন-ক্যালসিয়ামেরও অভাব

শরীরকে সুস্থ এবং সবল করে রাখতে এবং রোগ থেকে দূরে রাখার জন্য অবশ্যই আমাদের স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ করা প্রয়োজন। এমন কিছু খাবার রয়েছে যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভীষণভাবে উপকারী এবং আমাদের শরীরকে রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। তবে এমন কিছু কিছু খাদ্য রয়েছে যেগুলো ভিজিয়ে রাখলে সেই খাদ্যের খাদ্য উপকারিতা অনেক বেশি বেড়ে যায়।

খাবার ভিজিয়ে রাখার কথা বললে সকলের আগে আমাদের মাথায় আসে বাদামের কথা। কিন্তু আপনি কি জানেন বাদাম ছাড়া আরও অনেক খাবার রয়েছে যেগুলো সারারাত ভিজিয়ে রাখলে পরের দিন সকালে যদি সেই সমস্ত খাবার আপনি গ্রহণ করেন তাহলে আপনি পেয়ে যাবেন প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি উপাদান। বিখ্যাত ডায়েটিশিয়ান শিখা আগরওয়াল শর্মার মত অনুযায়ী, আপনি যদি রক্তাল্পতা, ক্লান্তি,দুর্বলতা এবং হাড়ের ব্যথার মতো সমস্যায় ভোগেন তাহলে আপনি অবশ্যই এই সমস্ত খাবার গ্রহণ করতে শুরু করতে পারেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই সমস্ত পুষ্টিকর খাবারের তালিকা।

মেথি বীজ: মেথি বীজ ফাইবার সমৃদ্ধ হয় যা অন্ত্র পরিষ্কার করে রাখতে সাহায্য করে। এটি কোষ্ঠকাঠিন্যের জন্য ভীষণভাবে উপকারিতা প্রদান করে আপনাকে। এক চামচ মেথি বীজ জলে ভিজিয়ে রাখুন এবং সকালে খালি পেটে সেটি পান করুন। কয়েকদিন মেথি ভিজিয়ে রাখা জল পান করলে আপনার হজম ক্ষমতা অনেকাংশে বেড়ে যাবে এবং এটি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ভীষণভাবে ভালো। এছাড়াও এটি ঋতুস্রাব হওয়ার সময় মহিলাদের শরীরে ব্যথা কমিয়ে দেয়।


পোস্ত বীজ: এর মধ্যে থাকে ফোলেট, থায়ামিন, প্যানটোথেনিক অ্যাসিডের মত অন্যতম সেরা উৎস থাকে। এই বিজি উপস্থিত ভিটামিন বি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে এবং ওজন নিয়ন্ত্রণ করে। এটি একটি চর্বি কাটার হিসেবে পরিচিত সকলের কাছে, কারণ এই বীজ ওজন কমাতে ভীষণ ভাবে সাহায্য করে।

তেঁতুলের বীজ: এই বীজ হলো ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের ভান্ডার। যে সমস্ত ব্যক্তি কোলেস্টেরল সমস্যায় ভুগছেন, সেই সমস্ত ব্যক্তির জন্য ভীষণভাবে উপকারী তেঁতুল বীজ। ফ্ল্যাক্সসিড ফাইবার সমৃদ্ধ এই বীজ পরিপাকতন্ত্রকে পরিষ্কার এবং স্বাস্থ্যকর রাখতে সাহায্য করে। সকালে প্রত্যেকদিন এটি খেলে আপনার পেট পরিষ্কার থাকবে।

কিসমিস: কিসমিসে থাকে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম এবং আয়রন। অনেকেই জানেন না নিয়মিত কিসমিস ভেজানো জল খেলে শরীরে ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি কমতে সাহায্য করে।এটি রক্তাল্পতা এবং কিডনিতে পাথরের মতো সমস্যা দূর করে দেয়। রাতে ভিজিয়ে কিসমিস খেলে আপনি শারীরিকভাবে সুস্থ থাকতে পারেন।

সবুজ মুগ ডাল: এদের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন, ফাইবার এবং ভিটামিন ডি। এটি কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। উচ্চ রক্তচাপ রোগীদের কাছে ভীষণ ভাবে উপকারী প্রমাণিত হয়েছে সবুজ মুগ ডাল। রাতে ভিজিয়ে যদি আপনি এটি খেতে পারেন তাহলে এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আপনাকে ডায়াবেটিস এবং ক্যান্সার রোধ করতে সাহায্য করবে।