এই ৫ ভারতীয় ক্রিকেটারের অভিষেক ম্যাচই হয়ে গেছে ক্যারিয়ার শেষ, বছরের পর বছর অপেক্ষা করেও মেলেনি দ্বিতীয় সুযোগ

প্রত্যেক ক্রিকেটারের স্বপ্ন থাকে কোন না কোন সময় নিজের দেশের হয়ে ক্রিকেট ম্যাচ খেলবেন এবং নিজের দেশকে গর্বিত করবেন। কিন্তু সবার স্বপ্ন পূরণ হয়না। এমন অনেক ক্রিকেটার রয়েছেন যারা নিজেদের দেশের হয়ে খেলা তো শুরু করেছিলেন ঠিকই কিন্তু সেই অভিষেক ম্যাচ তাদের জীবনের শেষ ম্যাচ হিসেবে রূপান্তরিত হয়ে গিয়েছিল। চলুন দেখে নেওয়া যাক কোন কোন ক্রিকেটার এমন দুর্ভাগ্য নিয়ে এসেছিলেন।

পঙ্কজ সিং: ৫ জুন ২০১০ সালে শ্রীলংকার বিরুদ্ধে তিনি প্রথম ম্যাচ খেলে ছিলেন। এই ম্যাচে তিনি ৪২ বলে ৪৫ রান করেছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত এরপর তিনি আর কোন খেলায় সুযোগ পায়নি এবং অচিরেই তিনি হারিয়ে যান ক্রিকেট দুনিয়া থেকে।

পঙ্কজ ধর্মনি: ১৯৯৬ সালে সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। এই উইকেট-রক্ষক মাত্র ৮ রান করতে পেরেছিলেন প্রথম খেলায়। এরপর কোন খেলায় সুযোগ পাননি তিনি।

বিএস চন্দ্রশেখর: ১৬ বৎসর ক্রিকেট খেললেও তিনি একটিমাত্র ওয়ানডে ক্রিকেট খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন। ১৯৭৬ সালে তিনি একটি ওয়ানডে ক্রিকেট খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন যেখানে তিনি ৩৬ রানে ৩ টি উইকেট নিয়েছিলেন এবং ১৩ বলে ১১ রান করেছিলেন কিন্তু এই ওয়ান ডে ক্রিকেট খেলার পর আর কোনো ওয়ানডে ক্রিকেট খেলায় সুযোগ পাননি তিনি।

পারভেজ রসুল: ২০১৪ সালে ১৫ জুন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওয়ানডে ক্রিকেট খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি কিন্তু সেটাই ছিল তার শেষ ওয়ানডে ক্রিকেট ম্যাচ। দুর্ভাগ্যবশত এরপর আর তিনি কোন ক্রিকেট ম্যাচে সুযোগ পাননি খেলার।

ফয়েজ ফজল: জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে প্রথম ক্রিকেট ম্যাচ খেলে ছিলেন তিনি যেখানে ৬১ বলে ৫৫ রান জিতেছিলেন ক্রিকেটার কিন্তু এরপর আর কোন ক্রিকেট ম্যাচে দেখতে পাওয়া যায়নি এই ক্রিকেটারকে।