আয়েশা থেকে ক্যাটরিনা, বলিউডের এই অভিনেত্রীরা অস্ত্রোপচার করিয়ে নষ্ট করেছেন মুখের সৌন্দর্যতা

ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি সঙ্গে যুক্ত অভিনেত্রীরা বিশেষত নিজেদের সৌন্দর্যের জন্য সর্বদা আলোচনার শিরোনামে থাকেন। অনেক অভিনেত্রীই তেমন রয়েছেন যারা চিরকাল নিজেদের অপরূপ সৌন্দর্যের জন্য চিরকাল অন্যের হিংসার কারণ হয়েছিলেন। বলিউডে আবার এমন অনেক অভিনেত্রী রয়েছেন নিজেদের স্থান ধরে রাখার জন্য একাধিকবার নিজেদের মুখে করেছেন অস্ত্রোপচার। এই অস্ত্রোপচারে ভীষণভাবে ব্যয়বহুল হয় এবং অনেক সময় দেখা যায় অস্ত্রপচার করার পর অভিনেত্রীদের অনেকাংশে পাল্টে যায় বা আগের থেকে খারাপ হয়ে যায়।

সম্প্রতি কন্নড় অভিনেত্রী সাথী সতীশের রুট ক্যানেল সার্জারি করা চিকিৎসকদের অবহেলার কারণে অভিনেত্রীর সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যায়। সম্প্রতি অভিনেত্রীর বেশ কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে যা দেখে সম্পূর্ণ বোঝা যায় কিভাবে শুধুমাত্র একটি ভুলের কারণে অভিনেত্রী সম্পূর্ণ জীবন হতে চলেছে নষ্ট।তবে এই প্রথম কোনো অভিনেত্রীর অস্ত্রোপচার করা হচ্ছে তা নয়, এর আগেও বহু বলিউড অভিনেত্রী এমন রয়েছেন যারা স্বইচ্ছায় নিজের মুখে করেছেন অস্ত্রোপচার। কোন কোন অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে আবার কখনো অস্ত্রোপচার করার পর অভিনেত্রীদের মুখ চিরতরে পাল্টে গেছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই অভিনেত্রীদের নাম এক নজরে।

অনুষ্কা শর্মা: ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম প্রতিভাবান অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পদার্পণ করেছিলেন শাহরুখ খানের বিপরীতে “রাব নে বানা দি জোড়ি” সিনেমার মাধ্যমে। অনুষ্কা শর্মা ক্যারিয়ারের প্রথমেই নিজের ঠোঁটের অস্ত্রোপচার করিয়েছেন। অস্ত্রোপচার করার পর প্রথমবার তিনি মিডিয়ার সামনে আসেন এবং সেই ছবি দেখে অনেকেই অভিনেত্রীকে উপহাস করেছিলেন হাঁস বলে। অভিনেত্রীকে ঠোঁটের অস্ত্রপচার নিয়ে বহুবার উপহাস করা হলেও নিজের অস্ত্রপচার সম্পর্কে অভিনেত্রী কখনো কোনো কথা বলেননি।

আয়েশা টাকিয়া: “ওয়ান্টেড” সিনেমার মতো সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন এই নায়িকা আমাদের। অসাধারণ এই অভিনেত্রী প্লাস্টিক সার্জারি করে নিজের ক্যারিয়ারকে একেবারে শেষ করে দেন। প্লাস্টিক সার্জারি করার পর তার মুখ দেখতে এতটাই খারাপ হয়ে গিয়েছিল যে তিনি আর অন্য কোন সিনেমায় অভিনয় করতে পারেননি। যদিও আয়েশা টাকিয়া বলেন তিনি প্লাস্টিক সার্জারি করেননি বরং তাঁর মুখ এমনিতেই নষ্ট হয়ে গেছে।

ক্যাটরিনা কাইফ: ব্রিটিশ এই অভিনেত্রী বলিউডে নিজের স্থান অর্জন করেছিলেন সম্পূর্ণ নিজের প্রতিভার কারণে। সম্প্রতি ভিকি কৌশলের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন ক্যাটরিনা কাইফ। ক্যাটরিনা কিছু বছর আগে ঠোঁটের অস্ত্রপচার করিয়েছিলেন কিন্তু অস্ত্রোপচার করার পর তার ঠোঁটের আকৃতি একেবারে পাল্টে যায় যা দেখে উপহাস করেন অনেকে।

রাখি সাওয়ান্ত: বলিউড ইন্ডাস্ট্রি কন্ট্রোভার্সি কুইন হিসেবে পরিচিত বিখ্যাত অভিনেত্রী রাখি সাওয়ান্ত নিজের শরীরের বিভিন্ন স্থানে অস্ত্রোপচার করেছেন বহুবার। ঠোঁটের পাশাপাশি তিনি নিজের স্তনের অপারেশন করেছেন এবং স্তনকে বড় করেছেন কৃত্রিমভাবে। অস্ত্রোপচার করার পর তিনি নিজেকে সম্পূর্ণভাবে পাল্টে ফেলেছেন কিন্তু আগে থেকেই রাখিকে দেখতে আরো বেশি কুৎসিত হয়ে গেছে।

শ্রীদেবী: বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীদেবী নিজের ক্যারিয়ারে দুর্দান্ত সিনেমা উপহার দিয়েছেন আমাদের সকলকে। তিনি আজ আমাদের মধ্যে নেই কিন্তু বলাই যায় শ্রীদেবী নিজের মুখে ২৯ বার অস্ত্রপ্রচার করেছিলেন যার কারণে তার মূল সম্পূর্ণভাবে নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। অনেকে মনে করেন অভিনেত্রী বিউটি ইনজেকশন নিতে কিন্তু এই বিষয়ে শ্রীদেবী কোনো দিন কোনো কথা বলেননি।

কোয়েনা মিত্র: জনপ্রিয় অভিনেত্রী কোয়েনা মিত্র একবার মুখের অস্ত্রপচার করেছিলেন কিন্তু অস্ত্রোপচার করার পর এতটাই পাল্টে যায় তার মুখ যে অভিনেত্রীকে দেখে একেবারেই চিনতে পারেননি তার ভক্তরা।