বাংলাদেশের এই অভিনেত্রীরা এখন কাঁপাচ্ছে টলিউড , ছবি দেখলে পড়ে যাবেন প্রেমে।

টলিউড জগতকে অনেক দিন থেকেই বাংলাদেশের অভিনেত্রীরা কাঁপিয়েছেন। নামকরা বিখ্যাত অঞ্জু ঘোষ , রেজিনা আরো অন্যান্য অভিনেত্রীরা টলিউডে অনেক খ্যাতি অর্জন করেছেন। তবে মাঝের কয়েক বছর বাংলাদেশের অভিনেত্রীদের টলিউডে তেমন ভাবে দেখা যায় নি। কিন্তু বর্তমানে ইতিমধ্যে কয়েকজম অভিনেত্রী তাদের অভিনয় দ্বারা টলিউডকে মাতিয়ে দিয়েছেন।যদিও কলকাতা ও বাংলাদেশের প্রযোজনায় বাংলাদেশের অভিনেত্রীদের টলিউডের পর্দায় দেখা যাচ্ছে। বর্তমানে যেসব অভিনেত্রীরা টলিউডের পর্দাকে কাঁপিয়ে দিয়েছেন তারাই থাকবে আজকের নিউজ এ আমাদের আলোচ্য বিষয়।


বাংলাদেশের অনেক অভিনেত্রীরা টলিউডে অভিনয় করেছেন কিন্তু তাদের মধ্যে একজন অন্যতম অভিনেত্রী হলো “জয়া হাসান “। আবর্ত সিনেমার মধ্যে দিয়ে তিনি প্রথম টলিউডের জগতে পা রাখেন, এবং পরবর্তী সময়ে তিনি ব্যোমকেশ সিনেমায় আবিরের সাথে অভিনয়ের মাধ্যমে আলোচনায় আসেন। যদিও তিনি সব থেকে বেশি আলোচনায় এসেছিলেন সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের পরিচালিত চিত্র “রাজকাহিনী ” এর দ্বারা। এছাড়াও ২০১৭ তে বিসর্জন সিনেমায় তার অভিনয় কেউ দর্শকরা খুবই পছন্দ করেছিল। বর্তমান সময়ে দর্শকদের মনে টলিউডের এক ভালো অভিনেত্রী হিসাবে তিনি স্থান অধিকার করে নিয়েছেন।

জয়া হাসানের পর ২য় যে নামটি দর্শকদের মুখে প্রথমে আছে সেটি হল ” নুসরাত ফারিয়া “। রেডিও আরজে দ্বারা তিনি তার সাফল্য জীবনের সূচনা করলেও আজ তিনি একজন সফল অভিনেত্রী। তার ক্যারিয়ারের প্রথম ছবি ছিল আশিকী । যদিও এই ছবিটি বেশি আলোচনায় না এলে ও, তার পরবর্তী ছবি ” হিরো৪২০ ” এ দর্শক তার অভিনয় কে অনেক পছন্দ করেছিল। গত ২০১৬ সালে জিতের সাথে অভিনীত নুসরাত এর বাদশা ছবিটি খুব ভালো ভাবে সাফল্য অর্জন করে। এছাড়াও বাদশা ছবিটি বক্স অফিসে খুব ভালো রেসপন্স পাই । নুসরাতের “বস ২” এর অভিনয় দর্শকদের মন জয় করে নিতে সক্ষম হয়েছিল। এখনো পর্যন্ত তার অভিনীত ছবিগুলি তাকে সাফল্যের সিঁড়ি বেয়ে উঠতে সাহায্য করেছে।

এর পরবর্তী অভিনেত্রী হলো মাহিয়া মাহি । গত ২০১২ সালে “ভালোবাসার রং” ছবির মধ্যে অভিনয় দ্বারা তিনি তার ক্যারিয়ারের প্রথম সূচনা করেন। পরবর্তীকালে তিনি “অগ্নি” ও ” অগ্নি টু” সিনেমায় অভিনয়ের জন্য অনেক প্রশংসিত হন। অঙ্কুশ এর বিপরীতে রোমিও বনাম জুলিয়েট সিনেমায় তার অভিনয় দর্শকদের মন পুরোপুরি জয় করে নেয় এবং এই ছবি বক্সঅফিস ভালো রেসপন্স ও পায়।
তো বন্ধুরা আপনাদের এই পোস্টটি কেমন লাগলো কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close