আর যেতে হবে না পুরী দিঘাতেই বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের। এবার দিঘাতে হতে চলেছে বিশ্বের….

সালটা ২০১১, বাংলায় এক আমূল পরিবর্তন হয়। প্রায় ৩৪ বছরের বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে প্রথমবার ক্ষমতায় আসে তৃণমূল সরকার। মা মাটি মানুষের সরকার রাজ্যের উন্নয়নের তো অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। সেগুলি এবার পূর্ণ করার পালা তারই ফলস্বরূপ উন্নয়নের সার্থে রাজ্য সরকার নিল এক পদক্ষেপ। এবার পালা পর্যটক কেন্দ্র দীঘার উন্নতিকরণের। যেখানে মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্ন দীঘা যেন গোয়া কেও ছাড়িয়ে যাক তার পরিপ্রেক্ষিতে নেওয়া এই উদ্যোগ। ইতিমধ্যেই দিঘায় শুরু হয়ে গেছে নানা রকম উন্নয়নমূলক কাজ সেখানে নতুন জড়িত হলো এবার জগন্নাথ দেবের মন্দিরের নির্মাণ । যেখানে শুরু হয়ে গেছে আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার এবং তার সাথে সৈকত শহরকে সাজানোর কাজ।

দিঘায় এক প্রশাসনিক জনসভার মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, দীঘাতেও একটি বড়ো জগন্নাথ দেবের মন্দির এর নির্মাণকার্য শুরু করা হবে।দিঘাতে রয়েছে জগন্নাথ ঘটের কাছে একটি ছোট্ট জগন্নাথ দেবের মন্দির এবং সেই মন্দির কে বড় করে সাজানোর নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।এই মন্দির দ্রুত তৈরির প্রকল্পের দায়িত্ব তিনি শিশির অধিকারী ও শুভেন্দু অধিকারী কে দেন।মুখ্যমন্ত্রীর প্রধান পরিকল্পনা হচ্ছে, লক্ষাধিক মানুষ জগন্নাথ দেবের দর্শনের জন্য পুরী ভ্রমণ এ যান, সেই কথা কেই মাথায় রেখে তিনি চেয়েছেন দিঘা কে এক সাংস্কৃতিক পূর্ণ ভ্রমণ সৈকতে পরিবর্তন করার।

অনেক মানুষের হয়তো পুরি দূরে হওয়ার জন্য ভ্রমণ সক্ষম হয়ে ওঠে না। কিন্তু যদি দিঘাতে এমন সাংস্কৃতিক ভ্রমণ স্থান গড়ে ওঠে তাহলে দর্শকদের কোন ভাবনা চিন্তা নেই, কারণ তারা সেখানে গিয়ে জগন্নাথ দেবের দর্শন অনায়াসে করে আসতে পারবে।এছাড়াও তিনি বলেন, দিঘা বড় পর্যটক কেন্দ্রে পরিবর্তন হলে অনেক নিম্নবিত্ত শ্রেণীর মানুষেরা ছোট ছোট শিল্পে নিযুক্ত হতে পারবেন তাদেরকে আর বেকার হয়ে ঘুরতে হবে না।

মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর দীঘাকে বড় পর্যটন কেন্দ্রে রুপান্তরিত করার উদ্যোগ আপনাদের কেমন লেগেছে আমাদেরকে কমেন্ট বক্সে নিশ্চয় জানাবেন।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close