সামনে রয়েছে লম্বা লড়াই! করোনা নিয়ে আবারও দেশবাসীকে বার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির…

দেশজুড়ে জারি রয়েছে লকডাউন আর ভারতে এই করোনার জেরে মৃত্যুসংখ্যা পেরিয়ে গেছে 100 এর বেশি। তবে এখানেই শেষ নয় এর আগেও রয়েছে লম্বা লড়ায় আর এর জন্য দেশবাসীকে প্রস্তুত থাকতে আবেদন জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আজ সোমবার দিন বিজেপির 40 তম প্রতিষ্ঠা দিবসে এমন টাই বার্তা দিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।জানালেন যতদিন না জয় আসছে ততদিন এই করোনা বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই চালিয়ে যেতে হবে।

আজ সোমবার দিন বিজেপি কর্মীদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন এ বছর এমন একটা সময়ে দলের প্রতিষ্ঠা দিবস পড়েছে যেখানে শুধুমাত্র আমাদের দেশ একাই নয় গোটা বিশ্ব কঠিন পরিস্থিতির মুখে রয়েছে। মানবতা এরকম এক সংকটের সময় সবাইকে একত্র হয়ে দেশের সেবা করে যেতে হবে। এর পাশাপাশি লকডাউন এর সাফল্যের জন্য দেশবাসীর পরিণত মানসিকতার প্রশংসা করলেন তিনি এর পাশাপাশি লকডাউন এর পরিণয় বিচার-বুদ্ধির পরিচয় দিয়েছে দেশবাসী এ কথা জানান তিনি।

তবে এখনো লড়াইয়ে শেষ হয়নি সামনে রয়েছে লম্বা লড়াই। এর পাশাপাশি বিজেপি কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি জানান রাষ্ট্রসেবা এবং মানব সেবায় হল বিজেপি কর্মীদের দায়িত্ব তাই গরিব মানুষের কাছে পর্যাপ্ত ত্রাণ পৌঁছাচ্ছে কিনা সে বিষয়গুলো নিয়ে খেয়াল রাখতে হবে তাদের। আর অন্যদিকে ত্রান পৌঁছে দিতে যাওয়ার সময় মুখে মাস্ক অবশ্যই পড়ে নিবেন। এর পাশাপাশি এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আরো একবার ধন্যবাদ জানালেন সেসব কর্মীদের যারা নিজেদের জীবন বাজি রেখে এই মুহূর্তে জরুরী পরিষেবা প্রদান করার জন্য কাজ করে চলেছেন সেই সমস্ত ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী এবং জরুরি পরিষেবায় যুক্ত রয়েছে যেসব মানুষেরা তাদেরকে।

আর এর পাশাপাশি তিনি সরকারের তরফ থেকে যে অ্যাপটি লঞ্চ করা হয়েছে এই আপৎকালীন পরিস্থিতি তে সেই আরোগ্য অ্যাপটি ডাউনলোড করার পরামর্শ দিলেন, আর চেনা পরিচিত আরো 40 জনকে সেই অ্যাপটি ডাউনলোড করানোর কথাও বললেন।পিএম কেয়ারস তহবিলে অনুদান বাড়াতে হবে বলেও জানান তিনি। প্রসঙ্গত যেমনটা আমরা জানি দেশজুড়ে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে আগামী 14 ই এপ্রিল পর্যন্ত 21 দিনের জন্য লকডাউন এর ঘোষণা করেছিল‌ কেন্দ্রীয় সরকার।

আর তাই দেশজুড়ে এই ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে জরুরী কোন প্রয়োজন ছাড়া দেশের মানুষ জনকে বাইরে বেরোতে নিষিদ্ধ করা হয়েছে, আর ভারতের এরকম এক পদক্ষেপের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফ থেকে প্রশংসাও করা হয়েছে ভারতের আর এই কথাই তুলে ধরেন এই দিন নিজের বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও।তিনি বলেন দেশবাসীর সাথে এখন আমাদের কাজের প্রশংসা করছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা “হু” ও। এর পাশাপাশি ভারত ও যে এখন বিশ্বব্যাপী মরন ভাইরাস করোনা মোকাবেলা নিয়ে সার্ক এবং জি-20 এর সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে বৈঠকে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করছেন এ কথা মনে করিয়ে দিলেন তিনি।